হোমপেজ আন্তর্জাতিক লকডাউন: অনাহারে মরল মসজিদের হাজারও ঘুঘু

লকডাউন: অনাহারে মরল মসজিদের হাজারও ঘুঘু

97
0

লকডাউনের কারণে বন্ধ হয়ে যাওয়া আফগানিস্তানের মাজার-ই-শরীফের একটি মসজিদে এক হাজারের বেশি ঘুঘু অনাহারে মারা গেছে। মঙ্গলবার ওই মসজিদের তত্ত্বাবধায়কের বরাত দিয়ে ফরাসী বার্তাসংস্থা এএফপি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

কয়েক সপ্তাহ আগে করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে দেশটিতে লকডাউন জারি করায় বন্ধ হয়ে যায় মসজিদটি। পর্যটকদের কাছে আকর্ষণীয় এই মসজিদে হাজার হাজার ঘুঘুর বসবাস; সেখানে ঘুরতে আসা পর্যটকরাই দিতেন আহার।

উত্তর আফগানিস্তানের বালখ প্রদেশের দ্বাদশ শতাব্দির প্রাচীন এই মসজিদটি বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর সেখানকার ঘুঘুগুলো খাদ্য সঙ্কটে পড়ে বলে জানিয়েছেন তত্ত্বাবধায়ক।

মসজিদের সাংস্কৃতিক কল্যাণ বিষয়ক প্রধান কাইয়ুম আনসারি বলেন, প্রত্যেকদিন গড়ে প্রায় ৩০টি ঘুঘু মারা গেছে। আমরা মসিজদের বাইরে সেগুলো পুঁতে রেখেছি। গত কয়েক সপ্তাহে এক হাজারের বেশি ঘুঘু অনাহারে মারা গেছে।

গত কয়েক দশক ধরে মসজিদটিতে বসবাস করে আসা ঘুঘুগুলোকে অনেক পর্যটক পবিত্র বলে মনে করেন। মসজিদের তত্ত্বাবধায়ক আহমেদ নাবিদ বলেন, ঘুঘুগুলোকে পর্যটকরাই খাবার দিতেন। কিন্তু লকডাউনের কারণে কেউই সেখানে আসেননি।

মসজিদের ব্যবস্থাপকরা অনুমতি দিলে ঘুঘুগুলোকে সরকারের পক্ষ থেকে খাবার সরবরাহ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকারি এক কর্মকর্তা। বালখ প্রদেশ সরকারের মুখপাত্র মুনির ফরহাদ বলেন, আমরা ঘুঘুগুলোর জন্য খাবার কিনে মসজিদ কর্তৃপক্ষকে দেবো।

এদিকে, আফগানিস্তানে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি দিনে দিনে খারাপ আকার ধারণ করছে। দেশটিতে সরকারিভাবে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২১ হাজার ৪৫৯ জন বলে জানানো হলেও প্রকৃত সংখ্যা অনেক বেশি হতে পারে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন অনেকে।

দেশটিতে নমুনা পরীক্ষায় ৪০ শতাংশ ব্যক্তিই করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হচ্ছেন; যা বিশ্বে সংক্রমণের হারে অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক বেশি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে