হোমপেজ তথ্য প্রযুক্তি নজরকাড়া ডিজাইনে বড় পর্দার ওয়ালটনের নতুন স্মার্টফোন

নজরকাড়া ডিজাইনে বড় পর্দার ওয়ালটনের নতুন স্মার্টফোন

138
0

নজরকাড়া ডিজাইনের নতুন স্মার্টফোন বাজারে ছাড়ল দেশীয় প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। বড় পর্দার ফোনটির মডেল ‘প্রিমো এইচনাইন’। দুর্দান্ত সব ফিচারসমৃদ্ধ সাশ্রয়ী মূল্যের ফোনটিতে ব্যবহৃত হয়েছে ভয়েস ওভার লং টার্ম ইভোল্যুশন (ভিওএলটিই বা ভোল্টি) প্রযুক্তি। ফলে ফোরজি নেটওয়ার্কে গ্রাহকরা এইচডি (হাই ডেফিনিশন) ভয়েস কল ও ডেটা উপভোগ করতে পারবেন। পাবেন দ্রুততর কল সংযোগের সুবিধা। ওয়ালটন মোবাইল ফোনের হেড অব সেলস আসিফুর রহমান খান বলেন, আকর্ষণীয় ডিজাইনের ‘প্রিমো এইচনাইন’ ফোনটি ক্যামেলিয়ন ব্ল্যাক, পার্পল, সাইয়ান ব্লু এবং অরোরা গ্রিন চারটি ভিন্ন রঙে বাজারে ছাড়া হয়েছে। ফোনটির ব্যাককভারে ব্যবহৃত হয়েছে উজ্জ্বল আস্তরণ, যারফলে বহু রঙের মিশেলে এটি অনবদ্য রূপ নিয়েছে। ফোনটির নকশা, ডিসপ্লে এবং পারফরমেন্সের প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। ফলে মাত্র ৮,৬৯৯ টাকা দামের ‘প্রিমো এইচনাইন’ হয়ে উঠেছে মোহনীয় একটি স্মার্টফোন।

এই ফোনে ব্যবহৃত হয়েছে ৬.১ ইঞ্চির এইচডি প্লাস ১৯:৯ রেশিওর ইউ-নচ আইপিএস ডিসপ্লে। পর্দার রেজ্যুলেশন ১৫৬০ বাই ৭২০ পিক্সেল। রয়েছে ২.৫ডি কার্ভড গ্লাসও। ফলে বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার. ভিডিও দেখা, গেম খেলা, বই পড়া বা ইন্টারনেট ব্রাউজিং হবে আরো প্রাণবন্ত।

অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ পাই অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত ফোনটির উচ্চগতি নিশ্চিত করতে রয়েছে ১.৬ গিগাহার্জ গতির অক্টাকোর এআরএম কোর্টেক্স-এ৫৫ প্রসেসর। উন্নতমানের গেমিং ও স্পষ্ট ভিডিওর অভিজ্ঞতা দিতে ব্যবহৃত হয়েছে পাওয়ারভিআর জিই৮৩২২ গ্রাফিক্স। বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার, ইন্টারনেট ব্রাউজিং, থ্রিডি গেমিং এবং দ্রুত ভিডিও লোড ও ল্যাগ-ফ্রি ভিডিও স্ট্রিমিং সুবিধা দেবে ৩ জিবির দ্রুতগতির ডিডিআর৪ র‌্যাম। আছে ৩২ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ মেমোরি। যা মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে আরো ১২৮ গিগাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ফলে অনেক বেশি ছবি, ভিডিও, ডকুমেন্টস ইত্যাদি সংরক্ষণ করা যাবে।

এই স্মার্টফোনের পেছনে আছে এলইডি ফ্ল্যাশযুক্ত ১৩ এবং ২ মেগাপিক্সেলের অটোফোকাস ডুয়াল ক্যামেরা। এফ ২.০ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ এই ক্যামেরায় ব্যবহৃত হয়েছে এআই (আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স) এবং পিডিএএফ প্রযুক্তি। রয়েছে বোকেহ মোড। ফলে ছবি হবে মনের মতো উজ্জ্বল ও প্রাণবন্ত। দুর্দান্ত সেলফির জন্য এই ফোনের সামনে থাকছে পিডিএএফ প্রযুক্তির ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। নরমাল মোড ছাড়াও ক্যামেরায় রয়েছে প্রো মোড, ফিল্টার মোড, ফেস বিউটি, ফেস ডিটেকশন, ডিজিটাল জুম, সেলফ টাইমার, অটো-ফোকাস, টাচ-ফোকাস, টাচ-শট, এইচডিআর, টাইম ল্যাপস, স্লো মোশন, প্যানোরমা, স্মার্ট সিন, নাইট মোড, বোকেহ, বিএসআই, স্মাইল শট, পোরট্রেইড মোড, ফিংগারপ্রিন্ট ক্যাপচার, ফেস কিউট, কার্ড স্ক্যানার, জিফ, ওয়াটারমার্কসহ অসংখ্য আকর্ষণীয় ফিচার।

দীর্ঘক্ষণ পাওয়ার ব্যাকআপ দিতে এই ফোনে আছে ৩৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। ডুয়াল সিমের ফোরজি স্মার্টফোনটির সুরক্ষায় রয়েছে ফেস আনলক এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। কানেক্টিভিটির জন্য আছে ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ভার্সন ৪, ইউএসবি ২, ওয়্যারলেস ডিসপ্লে, ল্যান হটস্পট, ওটিএ ও ওটিজি সুবিধা। এর অন্যান্য উল্লেখযোগ্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে স্মার্ট কন্ট্রোল, অনলাইন থিমস, ফুল এইচডি ভিডিও প্লেব্যাক, রেকডিংসহ এফএম রেডিও ইত্যাদি। দেশে তৈরি এই স্মার্টফোনে রয়েছে বিশেষ রিপ্লেসমেন্ট সুবিধা। স্মার্টফোন কেনার ৩০ দিনের মধ্যে ত্রুটি ধরা পড়লে ফোনটি পাল্টে ক্রেতাকে নতুন আরেকটি ফোন দেয়া হবে। এছাড়াও, ১০১ দিনের মধ্যে প্রায়োরিটি বেসিসে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ক্রেতা বিক্রয়োত্তর সেবা পাবেন। তাছাড়া, স্মার্টফোনে এক বছরের এবং ব্যাটারি ও চার্জারে ছয় মাসের বিক্রয়োত্তর সেবা তো থাকছেই।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে