হোমপেজ অপরাধ শ্রীপুরে শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে লাশ

শ্রীপুরে শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে লাশ

139
0

গাজীপুরের শ্রীপুরের বরমী শীতলক্ষ্যা নদীতে সাঁতার কাটতে গিয়ে মোটা বালুর ভলগেটের নিচে পরে নিখোঁজ হাফেজ রাসেলের লাশ ৪২ ঘণ্টা পর ভেসে উঠেছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ মে)সকাল ৬ টার দিকে কাপাসিয়ার সিংহশ্রী ইউনিয়নের কাচার পাড়া গ্রামের শ্মশান ঘাটের পূর্ব পাশে শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে লাশ ভেসে উঠে।

নিহত হাফেজ রাসেল(১৬)  শ্রীপুর উপজেলার বরমী মধ্যপাড়া এলাকার নুরুল ইসলাম লিটনের একমাত্র ছেলে। সে বরমী ছিটপাড়া আ. ছাত্তার মেম্বার বাড়ি মাদরাসা থেকে কোরআনের হাফেজ হন।

এর আগে মঙ্গলবার (১২ মে)দুপুর ১২ টার দিকে বরমী শীতলক্ষ্যা (বানার) নদীতে বন্ধুরা মিলে সাঁতার কাটতে গিয়ে নিখোঁজ হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী বন্ধুদের বরাত দিয়ে বরমী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ  সম্পাদক এবং ৮ নং ওয়ার্ড সদস্য হারুন খন্দকার  জানান,পাঁচ জন বন্ধু মিলে নদীতে সাঁতার কেটে নদী পার হতে ছিলেন, মাঝ নদীতে রাসেল (মোটা বালু পারাপারে) ভলগেটের নিচে পরে যায়, পরে আর তার কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। পরে বন্ধুদের কাছে খবর পেয়ে স্থানীয়রা প্রথমে নদীতে অনুসন্ধান চালায় নিখোঁজ হাফেজ রাসেলকে উদ্ধারের জন্য।

পরে খবর পেয়ে মাওনা ফায়ার সার্ভিস টংগী থেকে একটি ডুবুরী দল নিয়ে এসে নিখোঁজ রাসেলের অনুসন্ধানে পানিতে নামে। ডুবুরি দলটির টানা দুই দিনের অভিযানে উদ্ধার করতে পারেনি হাফেজ রাসেলকে।

কাপাসিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে