হোমপেজ অপরাধ ধর্ষণের পর নিস্তেজ শিশুটিকে গলা টিপে হত্যা

ধর্ষণের পর নিস্তেজ শিশুটিকে গলা টিপে হত্যা

165
0

নেত্রকোনার বারহাট্টায় স্কুলছাত্রী মণি আক্তারকে (১১) ধ’র্ষণ ও হ’ত্যার ঘটনায় সুলতান মিয়া (২৬) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সুলতান বারহাট্টার রায়পুর ইউনিয়নের নয়াপাড়া এলাকার মৃত আবদুর রশিদের ছেলে। গতকাল পুলিশ সুপার কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানানো হয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এম আশরাফুল আলম জানান, গত ৩০ এপ্রিল সকালে রায়পুর ইউনিয়নের লামাপাড়া গ্রামের মান্নাফ মিয়ার মেয়ে মণি আক্তার নয়াপাড়া গ্রামের তালেব মাস্টারের বাড়িতে প্রাইভেট পড়তে যায়। সেখান থেকে ফেরার পথে সুলতান তাকে কৌশলে নিজ ঘরে নিয়ে যায়। পরে সুলতান তাকে ধ’র্ষণ শেষে গলাটিপে হত্যা করে। এরপর দিনভর লাশ বাড়িতে রাতে জঙ্গলে ফেলে দেয়। পরদিন সকালে মান্দারতলা গ্রামের জঙ্গল থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ২ মে মণির বাবা বারহাট্টা থানায় মামলা করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে সুলতানকে তার শ্বশুরবাড়ি বাউসি থেকে গ্রেফতার করে। এদিকে মনির পরিবার খুঁজতে থাকে মেয়েকে। পরদিন (১ মে) সকালে নয়াপড়া মান্দারতলা গ্রামের জঙ্গলে লাশ দেখেতে পায় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। এরই মধ্যে মনির বাবা মা এসে লাশ দেখে মেয়েকে শনাক্ত করেন। এ ঘটনায় মেয়ের বাবা বাদী হয়ে ২ মে বারহাট্টা থানায় মামলা দায়ের করেন। গত কয়েকদিন পুলিশ অভিযান চালিয়ে সুলতানকে তার শ্বশুরবাড়ি বাউসি এলাকা থেকে আটক করে। আসামী এমন আরও বিভিন্ন ঘটনা ঘটিয়েছে দীর্ঘদিন। মনি ৩৫ নং পাইকপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়তো।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে