হোমপেজ সারা বাংলা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অর্থায়নে ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে গলাচিপায়সৌর বিদ্যুতে আলোকিত

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অর্থায়নে ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে গলাচিপায়সৌর বিদ্যুতে আলোকিত

123
0

সঞ্জিব দাস, গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর গলাচিপায় সৌর বিদ্যুতে আলোকিত হয়েছে গ্রামীণ সড়ক বাজার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার ও রক্ষণাবেক্ষণ কর্মসূচীর আওতায় গ্রামীণ সড়কে সৌর বিদ্যুতের বাতি বসানো হয়েছে। ফলে লোডশেডিং হলেও ঘুটঘুটে অন্ধকারে গ্রামীণ হাট-বাজারে জলমল করছে সৌর বাতি। নিরাপদে চলাচল করছে জনগণ।সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, গলাচিপা, চিকনিকান্দি, উলানিয়া, গজালিয়া, কলাগাছিয়া, আমখোলা সড়কসহ চরকাজল ও চরবিশ্বাস, উপজেলার বিভিন্ন বাজার, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মন্দিরের সামনে প্রায় তিনশত পঁয়ত্রিশটি সৌর বাতি বসানো হয়েছে। ষ্টীলের বিশেষ ধরনের খুঁটিতে সোলার প্যানেলের মাধ্যমে জ্বলছে ল্যামপোষ্টের স্বয়ংক্রিয় এ বাতি। সন্ধ্যা হলেই বাতিগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে জ্বলে উঠছে। আবার সূর্যের দেখা মিললেই নিভে যাচ্ছে। মাইক্রোবাস চালক মনির বলেন, গলাচিপা-চিকনিকান্দি সড়কের কালারাজা এলাকায় গাছ ফেলে নিয়মিত ডাকাতি হতো।সোলার প্যানেল বসানোর ফলে ডাকাতির ঘটনা কমে গেছে। রাতে এখন নির্ভয়ে গাড়ি চালানো যায়। চিকনিকান্দি বাজার বনিক সমিতির সভাপতি জ্ঞানেন্দ্র চন্দ্র কুন্ডু বলেন, এ এলাকায় বিদ্যুতের লোডশেডিং বেশি। সোলার বাতি বসানোয় বাজারে বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার পরেও আলো থাকে। এতে চুরি ডাকাতি অনেক কমে গেছে। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা এস.এম দেলোয়ার হোসাইন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা সরকারের ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের চলমান প্রকল্প থেকে উপজেলায় রক্ষনা-বেক্ষনে কাবিটা, কাবিখা গ্রামীন অবকাঠামো সংস্কার নির্বাচনী এলাকায় সোলার প্যানেল বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে। আয়তনে বিশাল এ উপজেলার গুরুত্বপূর্ন স্থানে সৌর প্যানেলের মাধ্যমে আলো পৌছানো সম্ভব হচ্ছে। উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা টিটো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌছে দেওয়ার প্রকল্প বাস্তবায়নের আওতায় সড়ক বাতি স্থাপনে বিশেষ উদ্যোগ নেন। এর ধারাবাহিকতায় গলাচিপা উপজেলার গ্রামীণ সড়কেও সৌর বিদ্যুতের আলো পৌছে দেওয়া হচ্ছে। এখন রাতের আধাঁরে নিরাপদে মানুষ চলাচল করছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ্ মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, উপজেলার সকল ইউনিয়নে সরকারের পক্ষ থেকে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষনাবেক্ষনের জন্য সোলার দেয়া হয়েছে। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মু. শাহিন শাহ বলেন, ১২টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় প্রধানমন্ত্রীর অর্থায়নে সোলার দেওয়া হয়েছে। পটুয়াখালী-৩ (গলাচিপা-দশমিনা) জাতীয় সংসদ সদস্য এসএম শাহজাদা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার অর্থায়নে গলাচিপা উপজেলাকে আলোকিত করা হয়েছে। এ অবদান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে