রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:২০ পূর্বাহ্ন

শরীরের বিষাক্ত ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে দারুচিনি

শরীরের বিষাক্ত ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে দারুচিনি

দারুচিনি শরীরের জন্য অনেক উপকারী। এটি যে শুধু রান্নাতেই ব্যবহার করা হয় তা কিন্তু নয়, খাদ্যে বিষক্রিয়াও ঠেকিয়ে দিতে পারে এই প্রাচীন মশলা। খাবার জীবাণুমুক্ত রাখতেও ব্যবহার করা যেতে পারে দারুচিনির তেল।

সম্প্রতি ওয়াশিংটন স্টেট ইউনিভার্টির গবেষকদের গবেষণায় বেড়িয়ে এসেছে এই চমকপ্রদ এই তথ্যটি। খাদ্য প্যাকেটজাত করার সময় অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এজেন্ট হিসেবেও সিনামোমাম কাসিয়া ওয়েল বা সিনামান ওয়েল ব্যবহার করা যেতে পারে।

ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক লিনা শেং এর মতে, মাংস, ফল আর বিভিন্ন সবজি প্যাকেট করার সময় দারুচিনির তেলের প্রলেপ দেয়া যেতে পারে। মাংস, ফল আর সবজি ধোয়ার সময়ও ব্যবহার করা যেতে পারে। খাদ্য উপাদানে উপস্থিত অণুজীব ধ্বংস করে দেবে এই দারুচিনির তেল।

ওয়াশিংটন স্টেট ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানীরা তাদের গবেষণায় যে বিশেষ ধরনের দারুচিনি ব্যবহার করেছেন তার নাম ‘কাসিয়া সিনামান’। যা ইন্দোনেশিয়ায় সবচেয়ে বেশি উৎপাদিত হয়। অন্যান্য জাতের দারুচিনির তুলনায় এর গন্ধটাও শক্তিশালী।

মানবদেহের জন্য ক্ষতিকারক বিষাক্ত উপাদান ছড়ায় এমন একাধিক ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে দিতে পারে এই দারুচিনির তেল। এর মধ্যে আছে একাধিক ই-কোলি ব্যাকটেরিয়াও।

স্বল্প মাত্রায় দারুচিনির তেল প্রয়োগ করেই খাদ্য উপাদান জীবাণুমুক্ত করা যায়। এক লিটার পানিতে ১০ ফোঁটা দারুচিনির তেল দিলে তা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সব ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে দিতে পারে বলে জানিয়েছেন শেং। এই দারুচিনি তেলে রয়েছে বিষক্রিয়া রোধের সক্ষমতা।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest