শনিবার, ২৪ Jul ২০২১, ০১:৪১ অপরাহ্ন

২৮ বছর পর কোপা চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা

২৮ বছর পর কোপা চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা

রিও ডি জেনেইরোর বিখ্যাত মারাকানায় সেলেসাওদের ১-০ গোলে হারিয়ে ১৯৯৩ সালের পর প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক ট্রফি জেতে আর্জেন্টিনা। সেই সাথে অবসান হলো ২৮ বছরের অপেক্ষার। দীর্ঘ ৭১ বছর পর ঐতিহাসিক মারাকানায় হারল ব্রাজিল।

আর্জেন্টিনা পেল ২৮ বছর পর শিরোপার স্বাদ। অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার করা একমাত্র গোলে তিতের অপরাজেয় যাত্রা অবসার ঘটিয়ে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন হলো আর্জেন্টিনা। ক্যারিয়ারের একমাত্র আক্ষেপ ছিল দেশের হয়ে একটি ট্রফি; সেটাও হয়ে গেলো চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলকে হারিয়ে। ম্যাচের ২২ মিনিটের সময় গোল দিয়েছিলেন ডি মারিয়া; সেটি আর শোধ করতে পারেনি ব্রাজিল। তবে সেমিফাইনালের মতো এবারো আর্জেন্টাইনদের গোল খাওয়া থেকে রক্ষা করেন গোলরক্ষক মার্টিনেজ।

২২ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাক থেকে ডি মারিয়ার গোলে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। রেনান লোদির ভুলে ডি মারিয়া এডারসনকে ফাঁকি দিয়ে ব্রাজিলের জালে বল জড়ান। ব্রাজিল ডিফেন্সের ওপর দিয়ে ডি পলের শট প্রথম সুযোগেই নিজের আয়ত্বে নেন ডি মারিয়া; লোদি থাকলেও তিনি রক্ষা করতে পারেননি। একা এডারসনকে ফাঁকি দিতে সমস্যা হয়নি অভিজ্ঞ ডি মারিয়ার। তিনিই প্রথম আর্জেন্টিনা ফুটবলার যিনি ২০০৪ সালের পর কোপার ফাইনালে প্রথম গোল করেন।

 

আর্জেন্টিনা একাদশ: দামিয়ান মার্টিনেজ, ওটামেন্দি, আকুনা, মন্টিল, রোমেরো, ডি পল, পারেদেস, লো সেলসো, মেসি, ডি মারিয়া, লাউতারো মার্টিনেজ।

ব্রাজিল একাদশ: এডারসন, থিয়াগো সিলভা, ড্যানিলো, মারকুইনহোস, রেনান লোদি, ক্যাসেমিরো, ফ্রেড, এভারটন, লুকাস পাকুয়েতা, রিচার্লিসন, নেইমার।

এখন পর্যন্ত দুই দল মুখোমুখি হয়েছে ১০৫ বার। ১৯১৪ সালে প্রথমবার মুখোমুখি হয় সেলসাও-আলবিসেলেস্তেরা। দুই দলের ১০৫ মোকাবেলায় ব্রাজিলের জয়ের পালা ভারি। পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা জেতে ৪১টি ম্যাচে, আর্জেন্টিনা ৩৮টিতে। আর বাকি ২৬টি ম্যাচ ড্র।

১৯৯৫ সালের কোপার আসর থেকে চলমান টুর্নামেন্ট পর্যন্ত মোট ৫ বার দেখা হয়েছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার। তার মধ্যে ব্রাজিল জিতেছে তিনটিতে আর্জেন্টিনা দুটিতে। তারমধ্যে একবার দেখা হয় ২০০৭ সালের ফাইনালে; সেবার ৩-০ গোলে আর্জেন্টিনাকে উড়িয়ে দেয় ব্রাজিল।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest