মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৪:৩৮ পূর্বাহ্ন

ফাইনালে তামিমকে হতাশ করে বাবরের শিরোপা জয়

ফাইনালে তামিমকে হতাশ করে বাবরের শিরোপা জয়

প্রথমবারের মতো পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) ফাইনালে উঠেছিল লাহোর কালান্দার্স। তাদের প্রতিপক্ষ করাচি কিংসও ফাইনালে এবারই প্রথম উঠেছে। প্রথমবারের মতো পাকিস্তান সুপার লিগের শিরোপা জেতার হাতছানি ছিলো দু’দলের সামনেই। তাই জমজমাট ফাইনালের আশায় ছিলেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। কিন্তু হলো উল্টোটা, একেবারেই ধীরগতির ফাইনাল। ধীরগতির উইকেটে সব উত্তেজনাই যেন নিমিষে হারিয়ে যায়।

ধীরগতির ফাইনালে প্রথম শিরোপা জিতে নেয় করাচি কিংস। তামিম ইকবালের লাহোর কালান্দার্সকে ৫ উইকেটে হারালো বাবর আজমের দল। আগে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ১৩৪ রান করে লাহোর। জবাবে ৫ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় করাচী।

করাচী ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে তামিম ও ফখর জামান কিছুটা ধীর লয়ে শুরু করেন দলের ইনিংস। পাওয়ার প্লে’তে তাদের ব্যাট থেকে আসে মাত্র ৩৭ রান। তামিম এবারের আসরে নিজের সর্বোচ্চ স্কোর পেলেও, তার ব্যাটিং ছিলো না টি টোয়েন্টি মেজাজের। ৩৮ বলে ৩৫ রান করে আউট হন তিনি। ফখর জামানের ব্যাট থেকে আসে ২৭ রান। এরপর মোহাম্মদ হাফিজ, বেন ডাঙ্ক, সীমিত প্যাটেলরা বড় স্কোর করতে ব্যর্থ হন। ফলে স্কোর বোর্ডে ৭ উইকেটে ১৩৪ রান তোলে লাহোর।

জবাবে, দলীয় ২৩ রানে আউট হন ওপেনার শারজিল খান। অভিজ্ঞ অ্যালেক্স হেইলসের ব্যাট থেকে আসে ১১ রান। তবে এক প্রান্তে অবিচল ছিলেন পাকিস্তান জাতীয় দলের অধিনায়ক বাবর আজম। মাঝে চ্যাডউইক ওয়ালটন ২২ রান কোরে তাকে সঙ্গ দেন। পর পর দুই বলে ইফতেখার ও রাদারফোর্ডকে ফিরিয়ে রোমাঞ্চের আভাস দেন হারিস রউফ।

তবে ফিফটি তুলে অপরাজিত থাকা বাবর আজম দলের প্রথম শিরোপা জয় নিশ্চিত করেন। ৬৩ রানে অপরাজিত থাকেন বাবর আজম। ম্যান অব দ্য ফাইনাল এবং সিরিজের পুরস্কার জেতেন বাবর আজম।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest