সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০২:১৩ অপরাহ্ন

ফখরুলের বাসা ঘেরাও, শতাধিক ডিম ছুড়েছেন নেতা-কর্মীরা

ফখরুলের বাসা ঘেরাও, শতাধিক ডিম ছুড়েছেন নেতা-কর্মীরা

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উত্তরার বাসা লক্ষ্য করে ইট-পাথর ও শতাধিক ডিম ছুড়েছেন ঢাকা-১৮ আসনের মনোনয়ন বঞ্চিতদের সমর্থকরা। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন ভঙ্গুর দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর উত্তরায় বিএনপি মহাসচিবের বাসার সামনে শতাধিক নেতা-কর্মী জড়ো হয়ে এ বিক্ষোভ করে। এ সময় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। কর্মীদের এমন আচরণে চরম ক্ষুব্ধ হয়েছেন বিএনপির মহাসচিবসহ দলটির হাইকমান্ড।

জানা গেছে, ঢাকা-১৮ আসনে বিএনপির প্রার্থী এস এম জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে এ আসনের অপর আটজন প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা এ বিক্ষোভে অংশ নেয়। বিক্ষোভকারীরা একজোট হয়ে এস এম জাহাঙ্গীরকে প্রতিহত করার ঘোষণাও দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দুপুরের পর থেকে বিএনপি মহাসচিবের বাসার সামনে অবস্থান নিয়ে এস এম জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকে মনোনয়ন বঞ্চিতদের সমর্থকরা। প্রতিবাদের শেষ পর্যায়ে বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা মির্জা ফখরুল ইসলামের বাসভবন লক্ষ্য করে শতাধিক ডিম ছুড়েন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপি চেয়ারপার্সনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান বলেন, এ ঘটনায় মহাসচিব খুব মর্মাহত হয়েছেন। নেতা-কর্মীদের কিছু বলার থাকলে দলীয় কার্যালয়ে গিয়ে বলতে পারতেন। তিনি একটি ভাড়া বাসায় থাকেন। সেখানে এ ধরনের ঘটনা ঘটানো অনাকাঙ্ক্ষিত।

জানতে চাইলে এ আসনের মনোনয়ন বঞ্চিত কফিল উদ্দিন আহমেদ বলেন, আমি জানি না কারা সেখানে বিক্ষোভ করেছেন, কারা ডিম-পাথর ছুড়েছেন। আমি আমার ফ্যাক্টরিতে গিয়েছিলাম। তখন মহাসচিব আমাকে ফোন করলে আমি বলেছি, এ বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই।

আরেক মনোনয়ন বঞ্চিত বাহাউদ্দিন সাদী জানান, তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না। এ ধরনের ঘটনা অপ্রত্যাশিত। যদি কারো মধ্যে রাগ-ক্ষোভ থাকেই, তা দলীয় ফোরামে আলোচনা করতে পারতেন। কিন্তু দলের মহাসচিবের বাসায় এ ধরনের ঘটনা খুবই দুঃখজনক।

এদিকে ঢাকা-১৮ আসনের উপ-নির্বাচনে বিএনপি থেকে মনোনয়ন চেয়েছিলেন নয় জন প্রার্থী। তাদের মধ্যে ঢাকা মহানগর উত্তর যুবদলের সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীরকে মনোনয়ন দেয় বিএনপি। গত শুক্রবার মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ প্রার্থীতা ঘোষণা করেন।

এর আগে, গত ১২ সেপ্টেম্বর ওই আসনে নয় প্রার্থীর সাক্ষাৎকার নেয়ার দিনে এস এম জাহাঙ্গীর ও অপর মনোনয়ন প্রত্যাশী এম কফিল উদ্দিনের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ১৫ থেকে ১৭ জন নেতা-কর্মী আহত হয়। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য এস এম জাহাঙ্গীরকে দায়ী করে অপর আটজন মনোনয়ন প্রত্যাশী বিএনপির হাইকমান্ডের কাছে লিখিত অভিযোগ করে।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest