শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০২:৪৩ পূর্বাহ্ন

তদন্তে যুক্ত হচ্ছে ট্যুরিস্ট পুলিশ

তদন্তে যুক্ত হচ্ছে ট্যুরিস্ট পুলিশ

স্টাফ রিপোর্টার :
হোটেল-মোটেল এবং পর্যটন স্পটগুলোতে নিরাপত্তা দিতে ট্যুরিস্ট পুলিশের সরকারি আদেশ জারি হয় ২০১৩ সালে। এরপর ২০১৫ সালে তারা কাজ শুরু করে। এতদিন তদন্তকাজে যুক্ত হওয়ার কোনো ক্ষমতা ছিল না সংস্থাটির। অবশেষে তাদের এ ক্ষমতা দিয়ে বিধিমালা তৈরি করেছে সরকার।

এর নাম দেয়া হয়েছে ট্যুরিস্ট পুলিশ বিধিমালা-২০২০। ৩ জুন এ সংক্রান্ত গেজেট প্রকাশ করা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে তদন্তে নামার উদ্যোগ নিয়েছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। এখন গ্রাউন্ডওয়ার্ক করা হচ্ছে। ক্ষমতা পাওয়ার বিষয়টি জানানো হচ্ছে পুলিশের সংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলোকে। প্রশিক্ষণের আওতায় আনা হচ্ছে তদন্তে যুক্ত হতে যাওয়া ৪৬৮ কর্মকর্তাকে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ট্যুরিস্ট পুলিশের ভারপ্রাপ্ত ডিআইজি ফজলুর রহমান যুগান্তরকে বলেন, তদন্তকাজে যুক্ত হওয়ার জন্য সম্প্রতি পুলিশ সদর দফতরে আমরা একটি চিঠি দিয়েছি। বিধিমালা তৈরি হলেও ট্যুরিস্ট পুলিশকে যে মামলা তদন্ত করার ক্ষমতা দেয়া হয়েছে, তা অনেকেই জানে না। তাই পুলিশ সদর দফতর থেকে অন্য ইউনিটগুলোতে চিঠি দিয়ে বিষয়টি অবগত করার অনুরোধ জানিয়েছি।

আমাদের চিঠির পর পুলিশ সদর দফতর কিছু বিষয় আমাদের কাছে জানতে চেয়েছে। ট্যুরিস্ট পুলিশ তদন্তকাজ শুরু করলে ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি) ও পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (সিআইডি) সঙ্গে কোনো সমস্যা তৈরি হবে কিনা তাও জানতে চেয়েছে। আমরা সব প্রশ্নের উত্তর দিয়েছি। আমাদের কর্মপরিধির বিষয়ে সম্যক ধারণা উপস্থাপন করে বলেছি- ট্যুরিস্ট পুলিশ তদন্ত কাজ শুরু করলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অন্য কোনো ইউনিটের সঙ্গে সমস্যা তৈরি হবে না। কারণ আমরা বিধিমালা অনুযায়ী, কেবল পর্যটকদের ফৌজদারি অপরাধের তদন্ত করব।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কোনো ব্যক্তি উপার্জনের উদ্দেশ্য ছাড়া অনধিক এক বছর পর্যটন এলাকায় অবস্থান করলে তিনিই পর্যটক। তার নিরাপত্তা দেয়া ট্যুরিস্ট পুলিশের দায়িত্ব। পুলিশ সদর দফতরের অনুমতি পেলেই মামলা অধিগ্রহণ শুরু করা হবে বলে জানান তিনি।

ট্যুরিস্ট পুলিশের পুলিশ সুপার (এসপি) আলমগীর হোসেন বলেন, তদন্তের জন্য আমরা দক্ষ জনবল তৈরির কাজ শুরু করেছি। আগামী মাস থেকে ব্যাপকভাবে প্রশিক্ষণ শুরু হবে। এএসআই থেকে পরিদর্শক পদমর্যাদার কর্মকর্তারা তদন্ত কাজে মাঠে থাকবেন। তাই ৭৫ জন পরিদর্শক, ১৫৭ জন এসআই এবং ২৩৬ জন এএসআইকে প্রশিক্ষণের আওতায় আনা হচ্ছে। গত পাঁচ বছরে দেশের পর্যটন এলাকায় যেসব অপরাধ ও মামলা হয়েছে সেগুলো পর্যালোচনা করে জনবলকে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সম্প্রতি কুয়াকাটার হোটেলে একজন নারী খুন হয়েছেন। কক্সবাজারের হোটেলে একটি চাঞ্চল্যকর আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। এ দুটি মামলা অধিগ্রহণের মাধ্যমে তদন্তকাজে ট্যুরিস্ট পুলিশের যুক্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ট্যুরিস্ট পুলিশের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, সারা দেশে পর্যটন স্পটের সংখ্য এক হাজার ৬৭৫টি। আকর্ষণীয় স্পট প্রায় অর্ধশত। এসব স্পটে পর্যটকের নিরাপত্তায় কাজ করছেন প্রায় এক হাজার ৩০০ ট্যুরিস্ট পুলিশ। ৭২টি অফিসের মাধ্যমে ট্যুরিস্ট পুলিশের কাজ চলছে। প্রতিবছর কম-বেশি এক লাখ দেশি-বিদেশি পর্যটক বিভিন্ন স্পট ভ্রমণ করেছেন।

ট্যুরিস্ট পুলিশ বিধিমালা অনুযায়ী- দর্শনীয় স্থান, প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন, ধর্মীয় স্থাপনা, চিড়িয়াখানা, সাফারি পার্ক, ইকোপার্ক, স্মৃতিসৌধ বা স্মৃতিস্তম্ভ সংবলিত স্থাপনা, হেরিটেজ, বিনোদন পার্ক এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমণ্ডিত স্থানসহ যেসব স্থান বা স্থাপনায় দেশি-বিদেশি পর্যটকদের সমাগম ঘটে সেসব স্থান ট্যুরিস্ট পুলিশের আওতায় থাকবে। এসব স্থানে পর্যটকের দেহ বা সম্পত্তির ক্ষেত্রে কোনো ধরনের ফৌজদারি অপরাধ ঘটলে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা হবে। এ ক্ষেত্রে মামলার তদন্ত করবে ট্যুরিস্ট পুলিশ।

মামলা ট্যুরিস্ট পুলিশে হস্তান্তর হওয়া পর্যন্ত থানা পুলিশ বা ক্ষমতাপ্রাপ্ত অন্য পুলিশ ইউনিট ঘটনাস্থল সংরক্ষণ, প্রাথমিক তদন্ত ও আসামি গ্রেফতার করতে পারবে। ট্যুরিস্ট পুলিশ কোনো মামলার তদন্তকাজ শুরু করলে মহাপুলিশ পরিদর্শকের লিখিত অনুমোদন ছাড়া অন্য কোনো সংস্থা এর তদন্ত করতে পারবে না। তবে ট্যুরিস্ট পুলিশ, ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি) ও পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআিই)- এই তিনটি সংস্থার ক্ষেত্রে যদি একটি মামলার তদন্তের বিষয় উপস্থাপিত হয় তবে সেটির তদন্ত করবে সিআইডি। এ সংক্রান্ত কোনো মামলা হস্তান্তরের দায়িত্ব পুলিশ কমিশনার বা পুলিশ সুপারের ওপর বর্তালে অনতিবিলম্বে তিনি তা ট্যুরিস্ট পুলিশের কাছে হস্তান্তর করবেন।

ট্যুরিস্ট পুলিশ বিধিমালায় আরও বলা হয়েছে, জোনাল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বা সহকারী পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে মামলার কেস ডায়েরি দাখিল করতে হবে। ট্যুরিস্ট পুলিশ সদর দফতরে ক্রাইম রিজার্ভ অফিস নামে একটি সেল থাকবে। এ সেল সব তদন্ত কর্মকর্তার দক্ষতা ও কর্মতৎপরতার বিবরণ সংরক্ষণ করবে।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest