শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:৪৮ অপরাহ্ন

১৮ বছর ধরে এক হাজার মানুষের সর্বনাশ করে হাওয়া স্বামী-স্ত্রী

১৮ বছর ধরে এক হাজার মানুষের সর্বনাশ করে হাওয়া স্বামী-স্ত্রী

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায় টানা ১৮ বছর প্রায় এক হাজার মানুষের সর্বনাশ করেছে এক দম্পতি। অথচ একবারের জন্য কেউ টের পায়নি। তাদের সঞ্চয়ের ১০ কোটি টাকা নিয়ে পালিয়েছে নামসর্বস্ব একটি সমবায় সমিতির কর্মকর্তা রমজান মিয়া ও তার স্ত্রী তানিয়া বেগম।

রোববার সকালে প্রতারক রমজান মিয়াসহ তার পরিবারের সদস্যদের গ্রেফতার ও তাদের সঞ্চিত টাকা ফিরিয়ে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন নগরীর বাবুরাইল বৌবাজার এলাকার ‘সম্মিলিত সঞ্চয় তহবিল সমবায় সমিতির’ সহস্রাধিক গ্রাহক।

নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচিতে গ্রাহকদের দাবির প্রতি সমর্থন জানিয়ে বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র আফরোজা হাসান বিভা ও ‘আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী’র সভাপতি মো. নুরুদ্দিন।

এ সময় বক্তারা বলেন, ১৮ বছর ধরে এলাকায় রমজান মিয়ার পরিবারের সদস্যরা এ সমিতি পরিচালনা করছে। সমিতির অধিকাংশ সদস্য নিম্ন আয়ের। করোনাকালে জুলাই থেকে গ্রাহকদের সঞ্চয়ের টাকা পরিশোধ না করে এলাকা থেকে পালিয়ে গেছে রমজান মিয়া ও তার স্ত্রী। গ্রাহকরা সঞ্চয়ের টাকা না পেয়ে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন। এদিকে রমজান মিয়ার সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।

সমিতির গ্রাহক আলী আব্বাস জানান, ১৮ বছর ধরে বৌবাজারে সমিতি চালিয়ে আসছে রমজান মিয়া। গ্রাহকরা তাকে বিশ্বাস করে প্রতি মাসে ও সপ্তাহে টাকা জমা দিতেন। বছর বছর বৈশাখে মানুষের টাকা ফেরত দিয়ে দিতো সে। এভাবে মানুষের কাছে আস্থা অর্জন করে রমজান ও তার স্ত্রী তানিয়া। এভাবে প্রায় এক হাজার অসহায় ও গরিব মানুষের কাছে থেকে টাকা জমা নিয়ে দুই মাস ধরে গা ঢাকা দিয়েছে তারা।

সমিতির আরেক সদস্য নূরজাহান বেগম জানান, রমজান ভালো ভালো কথা বলে প্রথমে মানুষের কাছে আস্থা অর্জন করেছে। পরে একসঙ্গে শত শত মানুষের কাছ থেকে সমিতির নাম করে টাকা নিয়ে উধাও হয়ে গেছে।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest