বুধবার, ১৬ Jun ২০২১, ০২:০৪ পূর্বাহ্ন

শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে ময়মনসিংহ জেলা পুলিশের সাথে পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দের আইনশৃংখলা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে ময়মনসিংহ জেলা পুলিশের সাথে পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দের আইনশৃংখলা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

এনামুল হক ছোটন
ময়মনসিংহ জেলা পুলিশের আয়োজনে আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজা ২০২০ উপলক্ষে ময়মনসিংহ জেলা,মহানগর ও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দের সাথে আইন-শৃংখলা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ৮ অক্টোবর ময়মনসিংহ পুলিশ লাইন্সে সকাল ১১ টা উক্ত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উজ্জামান, পিপিএম -সেবা এর সভাপতিত্বে ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) শাজাহান ভূঁইয়া সঞ্চালনায় উক্ত মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন অতিঃ পুলিশ সুপার ফজলে রাব্বী,অতিঃ পুলিশ সুপার (ডিএসবি) জয়িতা শিল্পী।
ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উজ্জামান সভাপতির বক্তব্য বলেন শারদীয় দুর্গোসব হলো বাঙ্গালীর তিনটি উৎসবের একটি অন্যতম উৎসব। ধর্ম যার যার, উৎসব সবার। তবে এবারের পূজায় করোনার কারনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। প্রয়োজন মত ঢাক বাজবে। তবে মাইক বা উচ্চস্বরে সাউন্ড সিস্টেম কিছু বাজানো যাবে না। বিশ্বে বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ হিসেবে পরিচিত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চান,নিয়ম বিধি মেনে শারদীয় উৎসব যেন শান্তিপূর্ণ ভাবে পালিত হয়। এবার অার অন্যবারের মত পূজা মন্ডবে পুলিশ ও অানসার বাহিনী থাকবে না। তাতে নিরাপত্তার কোন ত্রুটি থাকবে না। টহলকারী পুলিশ ছাড়াও সাদা পোষাকে পুলিশ সার্বক্ষনিক নজরে থাকবে। কোন সমস্যা দেখা দিলে অামাদের নিকটসস্থ থানার ওসি বা ওসি তদন্তর সাথে যোগাযোগ রাখবেন। পুলিশ সুপার অারো বলেন,পূজার সময় মাদক বিক্রি নিয়ন্ত্রণ করা হবে। উৎসব মুখর পরিবেশে পূজা উদযাপন করা হবে। উৎসব বাসায় পরিবারের সাথেও করা যায় আর উৎসব উছিলায় গ্যাদারিং করা যাবে না। সন্ধ্যার অাগেই প্রতিমা বিসর্জন দেয়ার বিষয়টি বিশেষভাবে বিবেচনা করতে পূজা কমিটির নেতৃবৃন্দের কাছে অনুরোধ জানান তিনি। প্রতিমা বিসর্জনের সময় আগের মতো সবাই যেতে পারবে না তবে বিসর্জনে যে কয়জন দরকার তারা যেতে পারবে।আর সবাই যেন শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিমা বিসর্জন দিতে পারে, এবং বিসর্জনের আগে সারা শহর প্রদক্ষিণ করা যাবে না এজন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করছি। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ জেলার হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বিকাশ রায়, ময়মনসিংহ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এডভোকেট রাখাল ও সাংগঠনিক সম্পাদক শংকর সাহা,মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এডভোকেট তপন দে ও সাধারণ সম্পাদক উওম চক্রবর্তী রকেট,সাংবাদিক অমিত রায়, সাংবাদিক রবীন্দ্রনাথ পাল। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহ জেলার বিভিন্ন সার্কেলের এএসপিগণ,ময়মনসিংহ ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মাহবুবুর রহমান ও ময়মনসিংহ ওসি ডিবি শাহ কামাল আকন্দ সহ ময়মনসিংহ জেলার বিভিন্ন উপজেলার পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ ও ময়মনসিংহ জেলার বিভিন্ন থানার অফিসার ইনচার্জগণ এবং বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় সাংবাদিকগণ। এবার শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে ময়মনসিংহ মহানগর সহ জেলার বিভিন্ন উপজেলায় মোট ৭৪৫ টি পূজামণ্ডপ বসবে।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest