রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৭:৪৬ অপরাহ্ন

মামলায় সাক্ষ্য না দেয়ায় তুলে নিয়ে হত্যা

মামলায় সাক্ষ্য না দেয়ায় তুলে নিয়ে হত্যা

মামলায় সাক্ষ্য না দেয়ায় এক টাইলস মিস্ত্রিকে লক্ষ্মীপুর তুলে নিয়ে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে মারধর ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টার দিকে নোয়াখালী বেগমগঞ্জ উপজেলার সীমান্তবর্তী ছয়ানী ইউনিয়নের আমিরপুর গ্রামের একটি ধানখেত থেকে বেগমগঞ্জ থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে।

নিহত রাসেল আমিন (৪৮) লক্ষ্মীপুর জেলার সদর উপজেলার চরশাহী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের পূর্ব সৈয়দপুর গ্রামের নজম উদ্দিন পাঠোয়ারী বাড়ির তছির আহমেদের ছেলে।

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন উর রশীদ চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন বলেন, চন্দ্রগঞ্জ উপজেলার চরশাহী ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক রিয়াজ বর্তমানে দু’টি মামলায় জেলে রয়েছেন। তার একটি মামলায় সাক্ষী ছিলেন নিহত রাসেল। রিয়াজ খারাপ প্রকৃতির লোক হওয়ায় রাসেল ওই মামলায় সাক্ষ্য দিতে অনীহা প্রকাশ করেন এবং সর্বশেষ ওই মামলায় সাক্ষ্য দেননি তিনি।

‘বুধবার সন্ধ্যার দিকে লক্ষীপুর সদর উপজেলার চরশাহী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের জাফরপুর এলাকার তায়ের মার্কেট সংলগ্ন কালার পোল ব্রিজে দাঁড়িয়ে ছিলেন রাসেল। এ সময় একই এলাকার শান্ত নামে এক যুবক ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা রাসেলকে ব্রিজের উপর থেকে তুলে নিয়ে মারধর করে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে মরদেহ লক্ষীপুর-নোয়াখালীর সীমান্তবর্তী নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের ছয়ানি ইউনিয়নের একটি ধানখেতে ফেলে দিয়ে যায়।’

অভিযুক্ত শান্ত দু’দিন আগে লক্ষ্মীপুর কারাগার থেকে জামিনে বেরিয়ে আসে। সে চরশাহী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের কালা মিয়া ব্যাপারী বাড়ির আব্দুল মোতালেত প্রকাশ কালা মিয়ার ছেলে। রিয়াজের মামলায় সাক্ষ্য না দেয়ার জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে জানান ওসি।

ওসি হারুন উর রশীদ চৌধুরী আরও জানান, মরদেহ উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখে এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest