রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:১৩ পূর্বাহ্ন

বাউফলে মিথ্যা মামলায় সাংবাদিক হয়রানী ,ওসি’র বিরুদ্ধে ডিআইজি ও পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ

বাউফলে মিথ্যা মামলায় সাংবাদিক হয়রানী ,ওসি’র বিরুদ্ধে ডিআইজি ও পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ

বরিশাল প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর বাউফল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মোস্তফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে এক সংবাদকর্মীকে আক্রোশমূলকভাবে মামলায়ফাঁসানোয় অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় ওসি’র বিচার চেয়ে বরিশাল রেঞ্জডিআইজি ও পটুয়াখালীর পুলিশ কাছে লিখিত অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগীসংবাদকর্মী মো: মনিরুল ইসলাম শাহীন। অভিযোগকারী বাউফাল উপজেলার ৮ নং মদনপুরাইউনিয়নের চন্দ্রপাড়া গ্রামের মো: মোসলেম উদ্দীন মৃধার পুত্র ং বরিশালের আঞ্চলিকদৈনিক বিপ্লবী বাংলাদেশে’র স্টাফ রিপোর্টার। লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে,সংবাদকর্মীর পরিবারের সাথে স্থানীয় কামাল মুন্সী গংদের সাথে জমি নিয়ে বিরোধরয়েছে । এ নিয়ে সংবাদকর্মীর দায়েরকৃত মামলার প্রেক্ষিতে আদালত বিরোধীয় জমিতেস্থিতিবস্থার আদেশ দেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে অভিযুক্তরা ২০১৫ সালের ১ মে শহীনকে কুপিয়েজখম করে। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। মামলাটি তদন্ত করে ৩১জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পিবিআই। তাছাড়া ওই মামলায় মমিনচৌকিদারসহ অন্য আসামিদের কারাভোগ করতে হয়েছে। ভুক্তভোগী পরিবারজানিয়েছেন, প্রতিপক্ষরা তাদেরকে দীর্ঘ দিন ধরে হুমকি দিয়ে আসছিলেন। এ বিষয়টিবাউফল সহকারী জজ আদলতকে লিখিতভাবে জানানো হলে আদালত বাউফল থানার ওসিকে১৫১ ধারায় তফসিল বর্ণিত সম্পত্তিতে স্থিতিবস্থায় বজায় রাখার নির্দেশ দেন। কিন্তুবাউফল থানার বর্তমান ওসি মোস্তাফিজুর রহমান আদালতের আদেশ না মেনে উল্টো আসামি পক্ষকে বিরোধী জমিতে দুটি ঘর নির্মানে সহায়তা করেন। এ বিষয় ওসিরবিরুদ্ধে আইজিপি’র কাছে অভিযোগ করলে সংবাদকর্মী ও তার পরিবার। পরে পটুয়াখালীর পুলিশ সুপার বাউফলের ওসিকে তার কার্যালয়ে ডেকে নিয়ে শাহীনের সামনেই ওসিকেসাবধান করে দেন। এতে শাহীনের উপরে ক্ষুব্ধ হন ওসি মোস্তাফিজুর রহমান। শাহীনঅভিযোগ করেন, গত বছরের ২৪ ও ২৯ নভেম্বর আদালতে দুটি মামলার ধার্য্য তারিখ ছিল। ওইতারিখে আমি যাতে আদালতে হাজির হতে না পারি সে জন্য আসামিদের পক্ষ নিয়ে কোন অপরাধ বা অভিযোগ ছাড়াই আমাকে ধরে নিয়ে থানায় আটকে রাখে। এমনকিপরবর্তীতে মিথ্যা অভিযোগে দায়ের করা একটি মামলায় আসামি দেখিয়ে আমাকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়। ওই মামলায় ২২ নভেম্বর থেকে চলতি বছরের ৬ জানুয়ারি পর্যন্তহাজত বাস করতে হয়। এ ব্যাপারে মদনপুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফারকাছে জানতে চাইলে সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদককে বলেন, মমিন চৌকিদারকে তার কুকর্মেরজন্য সাময়িক বহিস্কার করেছিলাম। বাউফল উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা তাকেশাসিয়ে ছিলেন ভবিষ্যতে যেন মামলা মোকদ্দমা এবং অনৈতিক কার্যকলাপে না জড়ায়। শাহীনের বাবা মো: মেসলেম উদ্দীন মৃধা বলেন, উল্লেখিত মামলার ব্যাপারে এলাকার দুইশতজন স্বাক্ষরিত পৃথক অভিযোগ রেঞ্জ ডিআইজি বরাবরে দাখিল করেছি। এদিকে বরিশাল রেঞ্জডিআইজি সফিকুল ইসলাম জানান অভিযোগ প্রমানতি হলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহনকরা হবে। অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে বাউফল থানার ওসি মো: মোস্তাফজুর রহমান সংবাদকর্মীদের জানান, আমি অভিযোগ সম্মন্ধে জানিনা, আপনারা সাংবাদিরা যাভালো মনে করেন লিখতে পারেন বলে মোবাইল ফোনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest