মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ০২:৫১ অপরাহ্ন

প্রাইভেটকার থেকে এক কোটি ৬০ লাখ টাকা উদ্ধার

প্রাইভেটকার থেকে এক কোটি ৬০ লাখ টাকা উদ্ধার

একটি প্রাইভেটকারের ভেতরে তল্লাশি করে দুটি ব্যাগে থাকা এক কোটি ৬০ লাখ টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ। কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলায় এ ঘটনা ঘটেছে।
আর এ ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে এত টাকার মালিক কে কিংবা একসঙ্গে এত টাকা কোথায় পেলেন তারা, এ নিয়ে দেখা দিয়েছে রহস্য। উদ্ধারকৃত টাকা নিয়ে বৃহস্পতিবার দিনভর জেলা পুলিশ, সিআইডিসহ গোয়েন্দা সংস্থার বেশ ব্যস্ততা ছিল।

উদ্ধারকৃত টাকা স্বর্ণ বিক্রির বলে দাবি করেছেন গ্রেফতারকৃতরা। তবে পুলিশের দাবি, স্বর্ণ বিক্রি সংক্রান্ত বৈধ কোনো কাগজপত্র না থাকায় টাকা উদ্ধারের ঘটনায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার গোপাটি গ্রামের কানুলাল কর্মকারের ছেলে তমাল কর্মকার, একই গ্রামের মৃত চন্দন কর্মকারের ছেলে অন্তু কর্মকার, চাঁদপুর সদর উপজেলার পশ্চিম বিঘনদী গ্রামের মৃত শুকুর বেপারীর ছেলে প্রাইভেটকারচালক সেলিম বেপারী এবং চাঁদপুর সদর উপজেলার গোল্ডেন টাওয়ার মহিলা কলেজ রোড এলাকার বাসিন্দা সম্ভুনাথ কর্মকারের ছেলে সুকদেব কর্মকার।

পুলিশ জানায়, বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে দাউদকান্দি উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের শ্রীরায়েরচর সড়কের কয়রাপুর লোহার সেতু এলাকায় টহল দিচ্ছিল পুলিশ। এ সময় টহল দল একটি প্রাইভেটকারের গতিবিধি সন্দেহজনক দেখে আটক করে। এরপর প্রাইভেটকারে তল্লাশি শুরু করলে দুটি ব্যাগের মধ্যে এক কোটি ৬০ লাখ টাকা আছে বলে তারা পুলিশকে জানান।

এ বিষয়ে দাউদকান্দি মডেল থানা পুলিশের ওসি মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা জানান উদ্ধারকৃত এক কোটি ৬০ লাখ টাকার মালিক তারা। ঢাকায় স্বর্ণ বিক্রি করে এসব টাকা নিয়ে তারা চাঁদপুরে যাচ্ছিলেন। তবে তারা স্বর্ণ বিক্রির কোনো রশিদ কিংবা বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পারেননি।

তিনি আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে বিষয়টি মানি-লন্ডারিং বলে প্রতীয়মান হওয়ায় সিআইডিকে বিষয়টি জানানো হয়। আইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মামলার কাগজপত্র সিআইডিতে পাঠানো হয়েছে।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest