রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৩:৪৩ অপরাহ্ন

কানাইঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দুর্নীতির বরপুত্র অফিস সহকারী শামীম

কানাইঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দুর্নীতির বরপুত্র অফিস সহকারী শামীম

সিলেটের কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কিছু অসাধু কর্মকর্তারা রেকর্ড সংখ্যক র্দুনীতিতে পা রেখেছেন। হাসপাতালের নানা কাজের র্দুনীতি আড়াল হলেও এবার প্রকাশ্যে বেরিয়ে এসেছে থলের বিড়াল। ভুয়া খাবারের পৃথক দুটি মেমো তৈরী করে ৭ জনের খাবারের বিল দেখানো হয়েছে ১ লক্ষ ৫৭ হাজার ৫ শত টাকা। আর বিল দেখানো হয়েছে কানাইঘাট মধ্য বাজারের নাঈম এন্ড ফাহিম রেষ্টুরেন্টের মেমো কাগজে।

এমনকি ম্যানেজার হিসাবে নাঈম নামে একটি স্বাক্ষরও দেখানো হয়েছে। এভাবে জালজালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে ভুয়া মেমো তৈরী করে সরকারের কোষাগার থেকে খাবার বাবত বিল উত্তোলন সহ নানা অনিয়ম-দূর্নীতির সত্যতা পাওয়া যাচ্ছে। তবে খাবার ভুয়া মেমো তৈরী করে বিল উত্তোলনের ভাউচারে হাসপাতালের টিএইচও ডাঃ শেখ শরফ উদ্দিন নাহিদ ও অফিস সহকারী শামীম আহমদের স্বাক্ষর রয়েছে।

এদিকে ভুয়া বিলে রেষ্টুরেন্টের নাম ব্যবহার, সীল ও ম্যানেজারের স্বাক্ষর জালিয়াতির দায়ে নিউ পানশী রেস্টুরেন্ট ও নাঈম এন্ড ফাহিম রেষ্টুরেন্টের স্বত্বাধিকারী মোঃ আব্দুল মান্নান বাদী হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে অভিযোগ দায়ের করেছেন। গত বুধবার তিনি এ অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেছেন বিল ভাউচারে যে তারিখ গুলো দেখানো হয়েছে সেই করোনাকালীণ সময়ে সরকারের নির্দেশ মতে তার রেষ্টুরেন্ট বন্ধ ছিল। এমনকি ভাউচারে নিচে নাঈম নামে ম্যানেজারের যে স্বাক্ষর দেখানো হয়েছে সেই স্বাক্ষরটি জালিয়াতি করা হয়েছে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের এমন জালিয়াতির ঘটনায় তিনি একজন ব্যবসায়ী হিসাবে তার সুনাম ক্ষুন্ন হয়েছে। এরজন্য তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট এর সঠিক বিচার দাবি করেছেন।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest