সোমবার, ১৪ Jun ২০২১, ০৯:৩৯ অপরাহ্ন

স্বাস্থ্যের আবজালের যোগ্য স্ত্রী রুবিনা! নামে-বেনামে ৫০ কোটি টাকার সম্পদ

স্বাস্থ্যের আবজালের যোগ্য স্ত্রী রুবিনা! নামে-বেনামে ৫০ কোটি টাকার সম্পদ

স্টাফ রিপোর্টার :
স্বাস্থ্য খাতের মাফিয়া হিসেবে পরিচিত আবজালের পাশাপাশি এবার আলোচনায় এসেছে তার স্ত্রী রুবিনা খানমের নাম। সামান্য স্টেনোগ্রাফারের পদে চাকরি করে নিজের নামে গড়ে তুলেছে প্রায় অর্ধশত কোটি টাকার সম্পদ।
শুধু তাই নয় স্বামীর সঙ্গে জোট বেঁধে সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া ও কানাডাসহ বিশে^র কয়েকটি দেশে পাচার করেছে প্রায় ১শ কোটি টাকা। আলোচিত আবজাল সম্প্রতি আকস্মিকভাবে আত্মসমর্পণ করলেও এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে তার সব কুকর্মের দোসর স্ত্রী রুবিনা খানম। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) পর্যন্ত কারও কাছেই কোনো তথ্য নেই রুবির অবস্থানের বিষয়ে। দুদকের তদন্তে জানা যায়, রুবিনার বিরুদ্ধে স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তির তথ্য গোপনসহ মোট ৩১ কোটি
৫১ লাখ ২৩ হাজার টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা হলেও তার মোট সম্পদের পরিমাণ ৫০ কোটি টাকারও বেশি। স্বাস্থ্য অধিদফতরের শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন শাখার স্টেনোগ্রাফার রুবিনা ছিল আবজাল হোসেনের সব কর্মকাÐের দোসর। ২০০০ সালে স্বেচ্ছায় চাকরি ছেড়ে দেয় রুবিনা। চাকরি ছেড়ে স্বামীর অর্থে সে বছরই রহমান ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি প্রতিষ্ঠান গড়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সঙ্গে কাজ শুরু করে রুবিনা। তার সহায়তায় আবজাল একের পর এক অবৈধ কর্মকাÐ চালিয়ে যাচ্ছিল। ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি প্রতিষ্ঠানের মালিক হিসেবে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে স্বামী-স্ত্রী মিলে স্বাস্থ্য অধিদফতরে একচেটিয়া ব্যবসা করে। তাদের দুজনের ২৫টি বাড়ি প্লট ও জমি আদালতের আদেশে ইতোমধ্যে ক্রোক করেছে দুদক।
এ বিষয়ে দুদকের পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য সময়ের আলোকে বলেন, তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী হওয়া সত্তে¡ও স্বাস্থ্য অধিদফতরে একচেটিয়া প্রভাব খাটাত আবজাল হোসেন। সম্প্রতি দুর্নীতির অভিযোগে একাধিক মামলার আসামি আবজাল আত্মগোপন থেকে আত্মসমর্পণ করলেও তার স্ত্রী রুবিনার কোনো হদিস মিলছে না। আমরা তাকে খুঁজছি। তবে কোথায় আছে সে এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে কোনো তথ্য নেই।
তবে একাধিক সূত্রে জানা যায়, গত বছর মামলা হওয়ার আগেই স্বামীর সঙ্গে দেশ ছেড়ে অস্ট্রেলিয়ায় পালিয়েছিল রুবিনা। তখন থেকেই তারা সপরিবারে সেখানে অবস্থান করছে। তবে সম্প্রতি আবজাল হোসেন প্রকাশ্যে এসে আত্মসমর্পণ করায় এ নিয়ে ব্যাপক আলোচনার জন্ম হয়। কেউ বলছেন দেশেই আছে রুবিনা। আবার কেউ বলছেন অস্ট্রেলিয়ায় আছে সে।
তৃতীয় শ্রেণির এক কর্মচারী হয়ে দেশ-বিদেশে অঢেল সম্পদ কীভাবে হলো সে তথ্য গত বছর বেরিয়ে আসতেই হইচই পড়ে যায়। ধারাবাহিকতায় নাম উঠে আসে তার স্ত্রী রুবিনারও। স্ত্রীর নামেই আবজাল গড়ে কোটি টাকার সম্পদ।
রাজধানীর উত্তরায় পাঁচটি বাড়িই রুবিনার নামে। ঘুষ, টেন্ডার ও নিয়োগ বাণিজ্যসহ নানা অবৈধ পন্থা অবলম্বন করে উপার্জিত অর্থের বেশিরভাগই আবজাল তার স্ত্রীর নামে রেখেছে। আর দেশ-বিদেশে বাড়ি, প্লট ও ফ্ল্যাট অধিকাংশই রুবিনার নামে।
দুদকের অনুসন্ধান সূত্র বলছে, উত্তরা ১৩ নম্বর সেক্টরের ১১ নম্বর সড়কেই তাদের ৪টি পাঁচতলা বাড়ি ও একটি প্লট রয়েছে। ১১ নম্বর সড়কের ১৬, ৪৭, ৬২ ও ৬৬ নম্বর বাড়িটি তাদের নামে। সড়কের ৪৯ নম্বর প্লটটিও তাদের। মিরপুর পল্লবীর কালশীর ডি-বøকে ৬ শতাংশ জমির একটি, মেরুল বাড্ডায় আছে একটি জমির প্লট। মানিকদি এলাকায় জমি কিনে বাড়ি করেছে, ঢাকার দক্ষিণখানে আছে ১২ শতাংশ জায়গায় দোতলা বাড়ি।
সম্প্রতি দুদকের জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্য স্বীকার করে আবজালের দেওয়া বক্তব্যের ভিত্তিতে জানা যায়, আবজাল হোসেন মালয়েশিয়ার মাই ব্যাংক ইসলামিক বারহাদ নামের আর্থিক প্রতিষ্ঠানের যুগ্ম হিসেবে (হিসাব নম্বর-৫৬২৩০২৬০৯৮০৫) ২০১৩ সালের ১১ সেপ্টেম্বর থেকে ২০১৬ সালের ২৮ জুলাই পর্যন্ত ৯ লাখ ২৯ হাজার ৬৭০ মালয়েশিয়ান রিংগিত জমা করে। তার প্রত্যক্ষ সহায়তায় স্ত্রী রুবিনা খানমের নামে মালয়েশিয়ার সিআইএমবি ব্যাংকের চারটি হিসাবে ২০১৩ সালের ২২ মে থেকে ২০১৬ সালের ২৮ জুলাই পর্যন্ত ২২ লাখ ১১ হাজার ১৯১ রিংগিত বাংলাদেশ থেকে জমা করা হয়। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৪ কোটি ৫১ লাখ টাকারও বেশি। একইভাবে আবজাল হোসেন কানাডার টরেন্টোতে দ্য টরেন্টো ডমিনিয়ন ব্যাংকে ২০১৫ সালের ৩ ডিসেম্বর থেকে ২০১৭ সালের ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত ২২ লাখ ২৩ হাজার ৬৫৫.৫০ কানাডিয়ান ডলার বাংলাদেশ থেকে পাচার করেন। পরবর্তী সময়ে তা কানাডা থেকে অস্ট্রেলিয়ায় পাচার করে। অস্ট্রেলিয়া অ্যান্ড নিউজিল্যান্ড ব্যাংকিং গ্রæপ লিমিটেড নামের হিসাবের মাধ্যমে ২০১৬ সালের ২৬ জুলাই ওই অর্থের পাশাপাশি আরও ১ লাখ ৬০ হাজার কানাডিয়ান ডলার অস্ট্রেলিয়ায় পাচার করেছে বলে আবজালের বক্তব্য ও রেকর্ডপত্র থেকে জানা গেছে। অস্ট্রেলিয়ায় পাচার করা ৩ লাখ ৮৩ হাজার ৬৫৫ কানাডিয়ান ডলার দিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় বাড়িসহ অন্য সম্পদ গড়েছে আবজাল দম্পতি।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest