সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:০৫ অপরাহ্ন

লঞ্চের ভাড়া দ্বিগুণ করার প্রস্তাব

লঞ্চের ভাড়া দ্বিগুণ করার প্রস্তাব

ডিজেলের দাম ৪১ শতাংশ বেড়ে যাওয়ায় লঞ্চের ভাড়া দ্বিগুণ করার প্রস্তাব দিয়েছে লঞ্চ মালিকেরা। প্রথম ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত দূরত্বের জন্য কিলোমিটারপ্রতি বর্তমান ভাড়া ২ টাকা ৩০ পয়সার জায়গায় ৪ টাকা ৬০ পয়সা এবং প্রথম ১০০ কিলোমিটারের বেশি দূরত্বের জন্য প্রতি কিলোমিটারে বর্তমান ভাড়া ২ টাকার জায়গায় ৪ টাকা করার প্রস্তাব দিয়েছেন তাঁরা।

রোববার (৭ আগস্ট) লঞ্চ মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌচলাচল (যাত্রী পরিবহন) সংস্থার পাঠানো চিঠিতে এই প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। সোমবার ভাড়া বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে মালিকদের সঙ্গে বৈঠক ডেকেছে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়।

সোমবার বেলা ১২টায় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোস্তফা কামাল। মন্ত্রণালয় ও নৌপরিবহন নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরবিহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে বৈঠকে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে নতুন করে লঞ্চভাড়া সমন্বয় করা হবে বলে সংশ্নিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

অভ্যন্তরীণ নৌচলাচল (যাত্রী পরিবহন) সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী রোববার সমকালকে জানান, যাত্রীভাড়া বৃদ্ধির লিখিত প্রস্তাব তারা নৌপরিবহন নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরবিহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) কাছে জমা দিয়েছেন। তারা যাত্রীভাড়া শতভাগ বৃদ্ধির প্রস্তাব করেছেন। বিআইডব্লিউটিএ এবং লঞ্চমালিকদের আলোচনার পর বৃদ্ধির হার চূড়ান্ত হবে। তিনি বলেন, লঞ্চভাড়া বাড়ছে এটা নিশ্চিত। ভাড়া বৃদ্ধি করা না হলে নৌপরিবহন ব্যবসা বন্ধ হয়ে যাবে।

সংস্থার সিনিয়র সভাপতি বদিউজ্জামাল বাদল বলেন, যেহেতু জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে, সেই হিসাবে লঞ্চভাড়ার সঙ্গে একটা সমন্বয় করা হবে-এটাই প্রত্যাশা। অতিরিক্ত ভাড়া চাচ্ছি না। অতিরিক্ত ভাড়ায় লঞ্চ যাত্রী হারিয়ে যাবে। এর আগে ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে গত বছরের ৭ নভেম্বর লঞ্চ মালিকদের সঙ্গে বৈঠকে সব ধরনের লঞ্চের ভাড়া ৩৫ শতাংশ বাড়িয়েছিল অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)। সে হিসাবে কিলোমিটারপ্রতি ৬০ পয়সা করে ভাড়া বেড়েছিল। ভাড়া বৃদ্ধির ফলে তখন কিলোমিটারপ্রতি ২ টাকা ৩০ পয়সা নির্ধারণ করে দেয় সরকার। তবে গত ২৫ জুন পদ্মা সেতু চালুর পর দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচলে দুরাবস্থা নেমে আসে। যাত্রী সংকটে অনেক লঞ্চ চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এই অবস্থায় বিলাসবহুল লঞ্চগুলোসহ সব ধরনের লঞ্চই তাদের ভাড়া কমাতে বাধ্য হয়। এরপরও চরম যাত্রী সংকটে ভুগছে যাত্রীবাহী লঞ্চগুলো।

লঞ্চমালিকদের দাবি মেনে সরকার এবার শতভাগ ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিলে প্রতি কিলোমিটারে নতুন ভাড়া দাঁড়াবে ৪ টাকা ৬০ পয়সা করে। এতে যাত্রী সংকট আরও বাড়বে বলে মনে করছেন লঞ্চ মালিকরা।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest