শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ১২:৪৭ পূর্বাহ্ন

তীব্র শৈত্যপ্রবাহ চলতি মাসের মাঝামাঝিতে

তীব্র শৈত্যপ্রবাহ চলতি মাসের মাঝামাঝিতে

সারা দেশে স্বাভাবিক শীত থাকলেও উত্তরাঞ্চলসহ কিছু এলাকায় বইছে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ। যা অব্যাহত থাকতে পারে। ফলে ওই এলাকার মানুষকে কষ্ট পোহাতে হচ্ছে। ডিসেম্বর ও জানুয়ারি মাসে স্বাভাবিকভাবেই দেশে শীতকাল থাকে। নতুন বছরের আগমন ঘটে থাকে শীতের মধ্য দিয়েই। তবে এবার দেশের প্রায় এক-চতুর্থাংশ জেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া শৈত্যপ্রবাহের মধ্য দিয়ে ২০২০ সালের বিদায় এবং ২০২১ সালের আগমন ঘটেছে।

জানুয়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ে দেশের কয়েকটি অঞ্চলের ওপর দিয়ে একটি তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাবে। আর তাতে তাপমাত্রা ৪-৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে নেমে আসতে পারে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস বলেন, জানুয়ারির ১৫-১৬ তারিখের দিকে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত শীতকাল। এই সময়ের মধ্যে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাবে।

এদিকে, আবহাওয়ার দীর্ঘমেয়াদী পূর্বাভাস জানাতে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক ও বিশেষজ্ঞ কমিটির চেয়ারম্যান সামছুদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে রবিবার বিশেষজ্ঞ কমিটির সভার প্রতিবেদন থেকেও তীব্র শৈত্যপ্রবাহের তথ্য জানা যায়। কৃষি মন্ত্রণালয়সহ সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে প্রতিবেদন পাঠানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, জানুয়ারি মাসে সামগ্রিকভাবে দেশে স্বাভাবিকের চেয়ে কম বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এ মাসে দেশে দু’একটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। যার মধ্যে একটি তীব্র (৪-৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস) শৈত্যপ্রবাহে রূপ নিতে পারে।

শনিবার (২ জানুয়ারি) সকাল ৯ টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘন্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশে আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। এছাড়া রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আবহাওয়ার সিনপটিক অবস্থায় বলা হয়েছে, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বাড়তি একটি অংশ পশ্চিমবঙ্গ ও এর কাছাকাছি এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। ঢাকায় আজ সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৫ টা ২৪ মিনিটে এবং আগামীকাল সূর্যোদয় ভোর ৬টা ৪২ মিনিটে।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest