মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৯:২০ অপরাহ্ন

কী সাজা হতে পারে নিক্সন চৌধুরীর

কী সাজা হতে পারে নিক্সন চৌধুরীর

নিজস্ব প্রতিবেদক : ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) মুজিবর রহমান চৌধুরী নিক্সনের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) মামলা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে জেলার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা নওয়াবুল ইসলাম বাদী হয়ে চরভদ্রাসন থানায় মামলাটি করেন। মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চরভদ্রাসন থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজনীন খানম।

জানা গেছে, উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বিধিমালার ৭৪(১); ৭৪(২), (ক), (খ) ও (গ); বিধি ৭০(১) (ক) এবং উপজেলা পরিষদ (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা ২০১৬ এর বিধি ২(১৪) লঙ্ঘন করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

এদিন দুপুরে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর বলেন, প্রশাসনকে হুমকি দেয়া, নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্তদের কাজে বাধা দেয়া এবং যে সময়ের মধ্যে বিজয় মিছিল করা, বা গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে নির্বাচনি এলাকায় যেতে পারবেন না, তার সবই তিনি ভঙ্গ করেছেন। এ কারণে কমিশন মামলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং রিটার্নিং অফিসার মামলা দায়ের করেছেন।

তিনি বলেন, নির্বাচনি যে আচরণ বিধি আছে, সেখানে বলা আছে- গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে নির্বাচনের আগে ও পরে একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ওই এলাকায় যেতে পারবেন না। কোনো নির্বাচনি প্রচারণা বা কোনো উৎসবে যোগ দিতে পারবেন না। বিজয় মিছিল করতে পারবেন না। শুধু ভোটার হলে সে ক্ষেত্রে কেবল ভোট দিতে যেতে পারবেন। কমিশন দেখেছে, ওই সময়টা পার হওয়ার আগে সেখানে বিজয় মিছিল হয়েছে। নির্বাচনে কেন বেশি ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেয়া হয়েছে তিনি (নিক্সন চৌধুরী) তার জন্য ফরিদপুর জেলা প্রশাসককে নিয়ে কথা বলেছেন, যেটা আইন অনুযায়ী উনার বলার কথা নয়। এছাড়া তিনি ফরিদপুর জেলা প্রশাসককে টেলিফোন করে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা চেয়েছেন। হুমকি দিয়েছেন। আরেকটি বিষয় হচ্ছে- জালভোট প্রদানকারী এক ব্যক্তিকে ধরে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে হস্তান্তর করার কারণে স্থানীয় সংসদ সদস্য ক্ষুব্ধ হন এবং এসি ল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে অযোগ্য ভাষা ব্যবহার করে ইউএনওকে ফোন দেন। এসব ঘটনাসহ নির্বাচন বিধিমালা পরিপন্থী যেসব বিষয় রযেছে, কমিশন তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখেছে। নির্বাচনের সঙ্গে যেসব বিষয় সংশ্লিষ্ট এবং আচরণবিধির বিপরীত তা বিবেচনায় নেয়া হয়েছে।

দোষী প্রমাণ হলে কোন ধরনের সাজা হতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, এটা নির্ধারণ করবেন আদালত। তবে ওই ধারাগুলোতে যে সাজার কথা বলা আছে, তাতে কোনো কোনো ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৫ বছর, আবার কোনো কোনো ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সাত বছর সাজা হতে পারে বা আর্থিক জরিমান হতে পারে।

এর আগে বুধবার (১৪ অক্টোবর) ঢাকা-৫ ও ঢাকা-১৮ আসনের নির্বাচন নিয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে বৈঠক শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলেন, বিধিবহির্ভূত আচরণের জন্য এমপি নিক্সনের বিরুদ্ধে মামলা করবে ইসি এবং তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।

এদিকে ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে জেলা প্রশাসককে (ডিসি) হুমকি ও ইউএনওর ফোনে এসিল্যান্ডকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করার অভিযোগে ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) মুজিবর রহমান চৌধুরীর নিক্সনের বিরুদ্ধে ভাঙ্গায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করেছে ভাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা

প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন ভাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আকরামুজ্জামান রাজা, সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুজ্জামান, সোবাহান মুন্সী, ভাঙ্গা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার মীর হাসমত আলী, ভাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন শেখ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মিঠুন চক্রবর্তী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক খায়রুল ইসলাম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সোহাগ প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার (১০ অক্টোবর) ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলাকালে মোবাইল ফোনে নিক্সন চৌধুরী ও চরভদ্রাসন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেসমিন সুলতানার কথোপকথনের একটি অডিও ভাইরাল হয়।

এতে এমপিকে বলতে শোনা যায়, ‘আপনার এসিল্যান্ড-ভাঙ্গা আমার লোককে গাড়িতে তুলে নিছে। ওরে দালালি করতে মানা করেন।’

তারপর গালাগাল করতে শোনা যায়। এরপর বলেন, ‘সিগারেট খাওয়ার জন্য ওকে ধরছে, আপনি ওকে ছাড়তে বলেন। আমি আসতাছি চরভদ্রাসন, পাঁচ মিনিট সময় দিলাম এর মধ্যে ছেড়ে না দিলে উপজেলা ঘেরাও করব আমি।’

নির্বাচন শেষে রাতে একটি বিজয় সমাবেশ হয় চরভদ্রাসন উপজেলা সদরের স্থানীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে। সেখানে এমপি নিক্সন চৌধুরী জেলা প্রশাসক অতুল সরকারকে হুঁশিয়ার করে দেন।

ডিসির উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আমি যদি নেতাকর্মীদের নিয়ে নামি, তবে আপনি এক মিনিট দম নেয়ার সুযোগ পাবেন না।’ তবে পরে সংবাদ সম্মেলন করে নিক্সন চৌধুরী বলেন, অডিও-ভিডিওর কণ্ঠ তার নয়।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest