বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১০:১৯ পূর্বাহ্ন

অতিরিক্ত সচিব হলেন ১৫৭ কর্মকর্তা

অতিরিক্ত সচিব হলেন ১৫৭ কর্মকর্তা

বিশেষ সংবাদদাতা :
অবশেষে যুগ্মসচিব থেকে অতিরিক্ত সচিব পদে ১৫৭ কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৩২ জন লেফটআউটসহ ১২৮ জন বিসিএস প্রশাসন ক্যাডার এবং ২৯ জন অন্যান্য ক্যাডারে কর্মকর্তা আছেন। এবারের পদোন্নতিতে নিয়মিত ব্যাচ হিসেবে একাদশ ব্যাচকে বিবেচনায় নেয়া হয়েছে।

এ ব্যাচের পদোন্নতিযোগ্য ১২৬ জন কর্মকর্তার মধ্যে ৯৬ জনকে পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। বুধবার রাতে পদোন্নতি পাওয়া ১৫৬ কর্মকর্তার নামে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। বাকি একজন কর্মকর্তা লিয়েন’এ থাকায় তার লিয়েন শেষে পৃথক প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। তবে এবারও পদোন্নতি থেকে বেশ কিছু কর্মকর্তাকে বঞ্চিত করা হয়েছে বলে বুধবার রাতে যুগান্তরের কাছে সংশ্লিষ্টরা অভিযোগ করেন।

অতিরিক্ত সচিব পদে অনুমোদিত পদের সংখ্যা ১২১। বর্তমানে অতিরিক্ত সচিব পদে কর্মরত আছেন ৪৫৩ কর্মকর্তা। এ পরিস্থিতিতে বুধবার রাতে ১৫৭ জনকে অতিরিক্ত সচিব করা হয়। এর ফলে এ পদে কর্মকর্তার সংখ্যা দাঁড়াল ৬১০ এ। হিসাব অনুযায়ী অনুমোদিত পদের চেয়ে অতিরিক্ত কর্মকর্তা সংখ্যা দাঁড়াল ৪৮৯। সঙ্গতকারণে পদ না থাকায় পদোন্নতি পাওয়া অধিকাংশ কর্মকর্তাকে আগের পদেই (ইন সিটু) কাজ করতে হবে অথবা ওএসডি থাকতে হবে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, রেওয়াজ অনুযায়ী পদোন্নতিপ্রাপ্তদের ইতিমধ্যেই ওএসডি (বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) করা হয়েছে। পদোন্নতিপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের মধ্যে বিসিএস ১৯৮৫ ব্যাচের আটজন, ৮৬ ব্যাচের চার জন, নবম ব্যাচের নয়জন, দশম ব্যাচের ১১ জন এবং নিয়মিত ব্যাচ হিসেবে একাদশ ব্যাচের ৯৬ জন কর্মকর্তা রয়েছেন।

এদিকে পদোন্নতির বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে বুধবার রাতে সংশ্লিষ্ট কয়েকজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা যুগান্তরকে বলেন, পদোন্নতি কারও অধিকার নয়, এটি যোগ্যতার বিষয়। তা সত্ত্বেও সুপিরিয়র সিলেকশন বোর্ড সবদিক বিচার-বিশ্লেষণ করে পদোন্নতির সুপারিশ করেছে। তারা মনে করেন, বর্তমান সরকারের তৃতীয় মেয়াদে পদোন্নতির যে ইতিবাচক ধারা তৈরি হয়েছে এখানেও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। তারপরেও যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও যারা পদোন্নতি পাননি বলে দাবি করছেন তাদের বিষয়টি যথাযথ পদ্ধতির মাধ্যমে সরকার নিশ্চয় বিবেচনায় নেবে।

গত ১১ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন নতুন সরকার ক্ষমতায় আসার পর প্রশাসনে এটাই প্রথমবারের মতো অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতি। এর আগে গত ১৬ জুন ১৩৬ জন উপসচিবকে যুগ্মসচিব পদে পদোন্নতির দিয়েছিল সরকার।

পদোন্নতিপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা হলেন : আহমেদ মোর্শেদ (৪৫১৪), ড. মো. কামরুল আহসান (৪৬৬৮), মো. সাজেদুল কাইয়ুম দুলাল (৪৭১৭), মো. বিল্লাল হোসেন (৪৭৮৯), মো. আনোয়ার হোসেন (৪৮০৪), মো. সাবের হোসেন (৪৮৬০), মোহাম্মদ এনামুল হক এনা (৪৮৭৫), শেখ আতাহার হোসেন (৫০৩৪), মো. জাহাঙ্গীর আলম (৫২২৫),

এসএম ফজলুল করীম চৌধুরী (৫৩৩২), মো. খায়রুল আমীন (৫৩৬০), মো. লাইসুর রহমান (৫৩৮৫), মোহাম্মদ আলাউদ্দিন (৪১২৪), মো. রফিকুল ইসলাম (৪১২৬), কাজী শাখাওয়াৎ হোসেন (৫৪৩৩), মো. মহসীন (৪১৪১), মো. মাহবুবুল ইসলাম (৪১৪৯), মো. ইউসুফ আলী (৫৪৫০), মো. শাহাদত হোসেন (৫৪৫৯), আলী রেজা মজিদ (৪১৮১), মো. আমজাদ হোসেন বেপারি (৫৪৭৭), মোহাম্মদ নুরুল আলম নিজামী (৫৫০৫), নুর মোহাম্মদ মজুমদার (৫৫০৬),

মো. এনামুল কাদের খান (৫৫০৮), মুহাম্মদ মেসবাহুল আলম (৫৫৩৭), ড. শাহনাজ আরেফিন (৫৫৩৯), মো. আবদুল কাইউম সরকার (৫৫৪৫), বেগম মাহমুদা খাতুন (৫৫৫২), বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য খোকন (৫৫৫৫), মো. আনিসুজ্জামান (৫৫৭০), বেগম রাশেদা আখতার (৫৫৭৭), মো. মজিবুর রহমান (৫৬১৯), আবু হেনা মোরশেদ জামান (৫৬৩৯), মো. খলিলুর রহমান (৫৬৪২), এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী (৫৬৪৬), ড. আবদুল হামিদ (৫৬৪৯), রওশন আরা বেগম (৫৬৫০),

ড. আবু সালেহ মোস্তফা কামাল (৫৬৫১), মুহাম্মদ ইব্রাহীম (৫৬৫২), বেগম নীলিমা আখতার (৫৬৫৩), মিজানুর রহমান (৫৬৫৪), শেখ রফিকুল ইসলাম (৫৬৫৬), ড. মো. জাহাঙ্গীর আলম (৫৬৫৮), বিকর্ন কুমার ঘোষ (৫৬৫৯), মো. আবদুল আলীম (৫৬৬১), মো. শাহজাহান আলী (৫৬৬২), বেগম নাসরীন আফরোজ (৫৬৬৩), বেগম নুরুন নাহার হেনা (৫৬৬৫), মো. আবদুল ওয়াহাব ভূঞা (৫৬৬৮), শেখ শোয়েবুল আলম (৫৬৭৪), মো. এ. আউয়াল হাওলাদার (৫৬৭৭),

কেএম রুহুল আমিন (৫৬৮১), ড. মো. আবদুল মান্নান পিএএ (৫৬৮৭), মেজবাহ উদ্দিন (৫৬৮৮), মো. মিজানুর রহমান (৫৬৯৪), কাজী আশরাফ উদ্দিন (৫৬৯৮), মো. শফি-উল হক (৫৬৯৯), ড. মহিউদ্দিন আহমেদ (৫৭০০), মোহাম্মদ এমদাদ উল্লাহ মিয়ান (৫৭০৪), মো. আশরাফ হোসেন (৫৭০৫), মো. ইউসুফ আলী মোল্লা (৫৭০৭), মো. আলী আহ্সান (৫৭০৮), কাজী এনামুল হাসান (৫৭০৯), মো. আবদুর রউফ (৫৭১০), মো. ইসমাইল হোসেন এনডিসি (৫৭১৩), সোলেমান খান (৫৭১৮), মো. শহীদুজ্জামান ফারুকী (৫৭২০), মো. ফারুকুজ্জামান (৫৭২১),

মো. শহীদুল আলম (৫৭২৬), মো. কামরুল হাসান (৫৭২৭), একেএম আফতাব হোসেন প্রামাণিক (৫৭২৮), মো. মাহবুব-উল-আলম (৫৭২৯), আহমেদ শামীম আল রাজী (৫৭৩১), মো. আলী কদর (৫৭৩২), মো. মাহ্বুব হোসেন (৫৭৩৪), মো. গোলাম মোস্তফা (৫৭৩৭), মোহাম্মদ আবদুছ ছবুর চৌধুরী (৫৭৩৮), মো. তাজুল ইসলাম (৫৭৪০), মো. ফজলুর রহমান (৫৭৪২), শাব্বীর হোসেন (৫৭৪৩), একেএম ফজলুল হক (৫৭৪৪), মুঃ আঃ হামিদ জমাদ্দার (৫৭৪৬),

বেগম মুনীরা সুলতানা (৫৭৪৮), মো. শফিকুল ইসলাম (৫৭৫১), মো. শাহ্ আলম (৫৭৫২), ড. মো. হুমায়ুন কবীর (৫৭৫৩), বেগম হামিদা চৌধুরী (৫৭৬১), মো. মনিরুজ্জামান (৫৭৬২), বেগম ফারহিনা আহমেদ (৫৭৬৪), মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান (৫৭৬৭), মো. জয়নাল আবেদীন (৫৭৬৮), মো. নুরুল আলম চৌধুরী (৫৭৭১), মো. সামসুল আরেফিন (৫৭৭৩), মো. সাইফুল হাসান বাদল (৫৭৭৭), এএফএম হায়াতুল্লাহ (৫৭৮৫), মো. আবদুস সাত্তার (৫৭৮৬), আনোয়ার হোসেন চৌধুরী (৫৭৯০),

হাবিবুর রহমান (৫৭৯১), মো. আবু বকর সিদ্দিক (৫৭৯৫), মো. আলতাফ হোসেন চৌধুরী (৫৭৯৬), মো. সাইফুল ইসলাম (৫৮০১), আবদুন নুর মো. আল-ফিরোজ (৫৮০২), সরদার সরাফত আলী (৫৮০৩), মো. মোহসিন চৌধুরী (৫৮০৫), মো. হাবিবুর রহমান (৫৮০৬), শশাংক শেখর ভৌমিক (৫৮০৮), বেগম ফেরদৌসী আখতার (৫৮১০), খলিল আহমদ (৫৮১৩), মো. মিজানুল হক চৌধুরী (৫৮১৫), মো. আবদুল মান্নান (৫৮১৭), মো. রুহুল আমিন খান (৫৮১৯), মো. মাসুদ করিম (৫৮২১),

সৈয়দ বেলাল হোসেন (৫৮২৩), মো. হাসানুজ্জামান (কল্লোল) (৫৮২৪), হাবিবুর রহমান (৫৮২৬), মো. জাহাঙ্গীর আলম (৫৮৩৪), বেগম খাদিজা বেগম (৫৮৩৫), বেগম মাকসুরা নুর (৫৮৩৮), বেগম সিদ্দিকা আকতার (৫৮৪২), প্রদীপ কুমার দাস (৫৮৪৩), মো. এনামুল হক (৫৮৪৪), মো. শাহ আলম (৫৮৪৬), বেগম নাজমা খানম (৫৮৪৮), মুহাম্মদ সালেহউদ্দিন (৫৮৪৯), মো. তাহমিদুল ইসলাম (৫৮৫৩), মো. জহুরুল ইসলাম রোহেল (৫৮৫৮), শিবানী ভট্টাচার্য্য (৫৮৫৯),

মো. হেমায়েত হোসেন (৭৪৯৫), ড. মো. রুহুল আমিন (৭৫৭১), মো. হেমায়েত উদ্দিন (৭৫৭২), ড. শেখ হারুনুর রশিদ আহমেদ (৭৫৭৩), শ্যামল চন্দ্র কর্মকার (৭৫০১), অজিত কুমার ঘোষ (৭৫০৪), সালমা বেগম (৭৫০৫), আবুল কালাম আজাদ (৭৫১৬), মো. মোশাররফ হোসেন (৭৫১৭), বলাই কৃষ্ণ হাজরা (৭৫১৮), সৈয়দ মজিবুল হক (৭৫১৯), শফিক আহমেদ শিবলী (৭৫৩৩), মো. ফারুক আহমেদ (৭৫৩৪), ড. অনিমা রানী নাথ (৭৫৩৫),

মোহাম্মদ রেজাউল করিম (৭৫৯৩), সোহরাব হোসেন (৭৬১৫), মুহাম্মদ নূর আলম (৭৬১৮), আবুল কালাম খান এনডিসি (৭৩৬৯), মো. মোশারফ হোসেন মোল্লা (৭৪৪৪), বেগম শিরীনা দেলহুর (৭৫৫৬), বেগম সেলিমা সুলতানা এনডিসি (৭৫৫৯), আবদুুল্লাহ হারুন পাশা (৭৫৬০), আরশাদ হোসেন এনডিসি (৭২৬৩), মো. মোফাজ্জেল হোসেন এনডিসি (৭৪৮৮), এএইচএম আহসান (৭৬৩৮), কবিরুল ইজদানী খান (৭৬৮৫), মো. গোলাম মোস্তফা (৭৫৫৩), কাজী মনোয়ার হোসেন (৭৫২৬) এবং মো. রুহুল আমিন তালুকদার (৭৫৯৭)।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest