মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৬:০৭ পূর্বাহ্ন

ধর্ষণ মামলার রায় মাদ্রাসা সুপারের যাবজ্জীবন

ধর্ষণ মামলার রায় মাদ্রাসা সুপারের যাবজ্জীবন

কুষ্টিয়ার মিরপুর থানার আলোচিত মাদ্রাসাছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মাত্র তিন কার্যদিবসে রায় ঘোষণা করেছে আদালত। রায়ে মাদ্রাসা সুপার মাওলানা আব্দুল কাদেরকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের জেল দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে একমাত্র আসামির উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন কুষ্টিয়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইবুনালের বিচারক মুন্সী মো. মশিয়ার রহমান। দেড় মাস আগে এই মামলা দায়ের করা হয়। এত দ্রুত সময়ে রায় দেয়ার ঘটনা জেলায় এটিই প্রথম। সারাদেশেও এ ধরনের ঘটনা বিরল বলে জানান আইনজীবীরা।

আদালত সূত্রে জানা যায়, গত ৩ ও ৪ অক্টোবর মিরপুর উপজেলার পোড়াদহ ইউনিয়নের স্বরূপদহ চকপাড়া এলাকায় সিরাজুল ইসলাম দারুল উলুম মরিয়ম নেসা মহিলা মাদ্রাসায় ১৩ বছরের অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে দুই দফায় ধর্ষণ করেন মাদ্রাসার সুপার মাওলানা আব্দুল কাদের। ঘটনার পর ৫ অক্টোবর ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মাদ্রাসা সুপারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। ওইদিন পুলিশ মাওলানা আব্দুল কাদেরকে গ্রেপ্তার করে। পরদিন ৬ অক্টোবর আব্দুল কাদের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

মিরপুর থানা পুলিশের এসআই আতিক এই মামলার তদন্ত করে মাত্র সাত দিনের মাথায় আদালতে গত ১৩ অক্টোবর তাকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দেন। এরপর গত ১২ নভেম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক এই মামলার চার্জ গঠন করেন।

১৩ ও ১৪ নভেম্বর ছুটি ছিল। ১৫ নভেম্বর বাদীসহ ১৩ জনের সাক্ষ্য নেয় আদালত। বিচারকার্য শুরুর মাত্র তিন দিনের মাথায় আলোচিত এই মামলায় রায় হলো।

আদালতের পিপি আব্দুল হালিম ঢাকা টাইমসকে বলেন, ‘মাত্র তিন কার্যদিবসে রায় হওয়ার বিষয়টি দেশে বিরল। দ্রুত এই রায়ের মাধ্যমে নির্যাতিত পরিবারটি ন্যায়বিচার পেয়েছে। এ রায়ের মাধ্যমে আদালতের প্রতি সাধারণ মানুষের আস্থা আরও বেড়ে গেল।’ আগামীতে দ্রুততম সময়ের মধ্যে এ ধরনের রায় আরও হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest