সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১১:১৩ পূর্বাহ্ন

ইউনুছ আলীকে ৩ মাস নিষিদ্ধ, আইন পেশা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ

ইউনুছ আলীকে ৩ মাস নিষিদ্ধ, আইন পেশা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ

বিচার বিভাগ নিয়ে ফেসবুকে বিরূপ মন্তব্য করে পোস্ট দেয়ায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দকে ৩ মাস আপিল বিভাগ এবং হাইকোর্ট বিভাগে আইন পেশা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে তাকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।

সোমবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন সাত সদস্যের আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এর আগে রোববার বিচার বিভাগ নিয়ে ফেসবুকে বিরূপ মন্তব্য করে পোস্ট দেয়ায় ইউনুছ আলী আকন্দ সশরীরে উপস্থিত হয়ে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছিলেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে। এরপর এ বিষয়ে শুনানি শেষে আদেশের জন্য আজকের দিন ঠিক করেছিলেন আপিল আদালত।

রোববারের শুনানিতে দেশের প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেছেন, এই আইনজীবী (ইউনুস আলী আকন্দ) একজন হ্যাবিচুয়াল কনটেম্পনার (অভ্যাসগত আদালত অবমাননাকারী)। এর আগেও তিনি তিনবার একই ধরনের অপরাধ করেছেন, তাকে ছেড়ে দিয়েছি। আর কতবার তাকে ছেড়ে দেব? তিনি এবার যে কাজ করেছেন সেটা কি ক্ষমারযোগ্য? তার যে বয়স (৬১ বছর) তাতে প্র্যাকটিস থেকে অবসর নেয়ার সময় হয়েছে।

গত ২৭ সেপ্টেম্বর ভার্চুয়াল আদালত নিয়ে ফেসবুকে বিরূপ স্ট্যাটাস দেওয়ায় অ্যাডভোকেট ইউনুছ আলী আকন্দকে সুপ্রিম কোর্টের আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগে আইনজীবী হিসেবে প্রাকটিস করা থেকে অব্যাহতি দিয়েছিলেন আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে তাকে আদালতে হাজির হতে নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। পাশাপাশি তার স্ট্যাটাসটি ফেসবুক থেকে মুছে দিয়ে অ্যাকাউন্ট ব্লক করে দিতে বিটিআরসিকে নির্দেশ দেন আদালত।

ওই আইনজীবীর স্ট্যাটাস আদালতের নজরে আনার পর প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest