রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০২:৪১ পূর্বাহ্ন

কৃষকের মুখে হাসি পাটের সুদিন ফিরেছে আবার

কৃষকের মুখে হাসি পাটের সুদিন ফিরেছে আবার

মহম্মদপুর মাগুরা প্রতিনিধি আলাউদ্দিনঃ পাটে সয়লাব বাজার ক্রেতা-বিক্রেতার আনাগোনায় জমজমাট বেচাকেনা। পাটের দাম বাড়তে শুরু করেছে। রমরমা হয়ে উঠেছে পাট বাণিজ্য। মৌসুমের শুরুতেই বিভিন্ন এলাকায় মণপ্রতি পাটের দাম উঠেছে সাড়ে তিন হাজার টাকা। পাটচাষিরা আশা করছেন, এবার পাটের মণ ১০ হাজার টাকায় উঠতে পারে। গত বছর পাটের মৌসুম শেষে পাটের দাম সাত হাজার টাকায় উঠেছিল। পরপর দুই বছর পাটের ভালো দাম পাচ্ছেন কৃষক। দীর্ঘদিন পর আবার সোনালি আঁশে নতুন আশা দেখা দিয়েছে।

স্বাধীনতার ৫০ বছর পর টানা দুই বছর ধরে কৃষক পর্যায়ে সর্বোচ দামে বিক্রি হচ্ছে পাট। এবার বাম্পার ফলন আর মৌসুমের শুরুতে ভালো দামে কৃষকের মুখে হাসি। পাট খাত ঘিরে আবার ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখছেন মাগুরার চাষিরা। চলতি মৌসুমে বিভিন্ন এলাকায় মানভেদে প্রতি মণ পাট তিন থেকে সাড়ে তিন হাজার টাকায় ওঠানামা করছে।

বাংলাদেশ পাটকল করপোরেশন (বিজেএমসি) পাট কিনলে এবার পাটের দাম সাত হাজার টাকা পর্যন্ত উঠতে পারে বলছেন পাটচাষিরা। চলতি বছর দুই বিঘা জমিতে পাটের আবাদ করেছেন মহম্মদপুর উপজেলার যশপুর এলাকার কৃষক লিটন মিয়া। তিনি জানান, গত বছরের মৌসুমের শুরুতে তিনি দেড় হাজার টাকা মণে সব পাট বিক্রি করে দেন।

তার পাশের বাড়ির কৃষক হাসান মৌসুমে শেষে সাত হাজার টাকা মণে পাট বিক্রি করেছেন। গত বছরের তিক্ত অভিজ্ঞতায় এবার তিনি সোমবার হাটে তিন হাজার ২০০ টাকা মণে কিছু পাট বিক্রি করেছেন। আর কিছু পাট মজুত রেখেছেন দাম বাড়লে বিক্রি করার জন্য। এ বছর অনেকটা খুশি মনেই পাটের আবাদ করেন মহম্মদপুর উপজেলার মৌশা গ্রামের কৃষক ছামাদ মুন্সি। গতবার ভালো দাম পাওয়ায় এবার দাম বাড়তে পারে, এমন আশায় তিন বিঘা জমিতে পাট আবাদ করেন তিনি ঝুঁকি নিয়ে সফল ।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest