বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:০৫ অপরাহ্ন

সিলেটে আ’লীগ নেত্রী পরিচয়দানকার সুনারা ও তার ছেলের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ

সিলেটে আ’লীগ নেত্রী পরিচয়দানকার সুনারা ও তার ছেলের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ

আওয়ামীলীগ নেত্রী পরিচয়দানকারী সুনারা বেগম ও তার ছেলে আতিকুল ইসলাম সোহান (আহমেদ সোহান) এর বিরুদ্ধে একটি পরিবারকে হয়রানি মারধর ও চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠেছে। গত ২০ সেপ্টেম্বর সুনারা বেগম ও তার ছেলে আতিকুল ইসলাম সোহানকে অভিযুক্ত করে জৈন্তাপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন জৈন্তাপুর উপজেলার চিকনাগুল ইউনিয়নের পানিছড়া গ্রামের বাসিন্ধা আব্দুল মালেকের ছেলে মো. সেলিম আহমদ।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, জৈন্তাপুরের আলোচিত আওয়ামীলীগ নেত্রী পরিচয়দানকারী চিকনাগুল ইউনিয়নের পশ্চিম ঠাকুরের মাঠি চানপরী চড়া এলাকার বাসিন্ধা সুনারা বেগম এর সহিত সেলিম আহমদ এর শাশুড়ীর এক সময় ভালো সম্পর্ক ছিলো। সেই সময় সেলিমের সাথে তার স্ত্রী সাবিনা বেগমের সাথে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়। সুনারা বেগমের খারাপ পরোচনায় সেলিমের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন তার স্ত্রী। কিন্তু পরবর্তীতে সেলিম ও তার স্ত্রী এই পারিবারিক ঝগড়া সমাধান হয়। কিন্তু সুনারা তাদের এই সমাধানকে মেনে নিতে রাজি নয়। সুনারা সেলিমের স্ত্রীর পরিবারের কাছে বড় অংকের টাকা দাবি করেন এবং তাদেরকে বিভিন্ন দেখিয়ে তাদের কাছ থেকে ৪৪ হাজার টাকা আদায় করেন। পরে এই পরিবার সম্মানের ভয়ে সুনারাকে টাকা দিয়েও সুনার সাথে কোন ধরণের সম্পর্ক না রাখার চেষ্টা করেন। কিন্তু সুনারা এই পরিবারের উপর আরও ১ লাখ টাকা চাঁদা-দাবি করে আসছে। এমনকি সুনার ও তার ছেলে সেলিমের নিকট প্রতিনিয়ত টাকা দাবি করে আসছেন।

সর্বশেষ গত ২০ সেপ্টেম্বর সেলিমের বাড়িতে গিয়ে টাকা দাবি করেন। এসময় সেলিমের স্ত্রী সাবিনা তাদের এই চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করলে তারা মা-ছেলে সাবিনাকে অশ্লীল ভাষায় গালাগালি করতে থাকেন। তাদের দাবিকৃত টাকা না দিলে সেলিম ও তার পরিবারকে যেকোন ধরণের মিথ্যা মামলায় ঢুকিয়ে তাদেরকে জেলের ভাত খাওয়াবেন। সুনারার এমন হুমকিতে নিরাপত্তাহীতায় ভোগছেন সেলিমের পরিবার।

স্থানীয় আরও অনেক ভুক্তভোগিরা জানান, সুনারার কোন কাজ কর্ম নেই। কিন্তু সে সবসময় আদালত পাড়ায় ঘোরাফেরা করে। এক মানুষকে দিয়ে অন্য মানুষের সাথে মিথ্যা মামলা ও মামলার দালালি করাই হচ্ছে তার মূল পেশা। এলাকার লোকজন তাকে মামলাবাজ সুনারা হিসাবে চিনেন।

এ বিষয়ে জৈন্তাপুর উপজেলার চিকনাগুল ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ড সদস্য মুজিবুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি কি বিচার করবো। সুনারা আমার সামনে এই পরিবারের কাছে টাকা দাবি করছে। আমাদের কোন বিচার সুনারা মানতে চায় না। সে গ্রাম্য বিচারের উর্দ্ধে।

অভিযোগকারী সেলিম আহমদ জানান, সে টাকা দাবির পাশাশি আমার স্ত্রীকে খারাপ প্ররোচনা দিয়ে আসছে। তার ছেলের জন্য আমার স্ত্রীর বিয়ে দিতে চায়। সে যেকোন সময় জোর করে আমার স্ত্রীকে উঠাইয়া নিয়ে যাবে এবং তার বখাটে ছেলে আতিকুল ইসলাম সোহান (আহমেদ সোহান) এর সহিত বিয়ে দিবে। সুনারা ও তার ছেলের এমন হুমকিতে আমি পরিবার নিয়ে নিরাপত্তাহীতায় ভোগছি।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জৈন্তাপুর থানায় সুনারা ও তার ছেলের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত অভিযোগটি রোকর্ডভূক্ত হয়নি। তবে অভিযোগটি তন্তাধীন অবস্তায় আছে।

সুনারা বেগম ও তার ছেলে আতিকুল ইসলাম সোহান (আহমেদ সোহান) এর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের নিকট আশু হস্থক্ষেপ কামনা করছেন ভুক্তভোগি সেলিম আহমদ।

এর আগে সুনারা ও তার ছেলের বিরুদ্ধে শাহপরান (রহঃ) থানাধীন পীরেরবাজার টিকরপাড়া এলাকায় দশম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীকে যৌন হয়রানি ও ফেসবুকে ছবি পোষ্ট করে বাজে মন্তব্য করার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। শাহপরান (রহঃ) থানা সি.আর মামলা নং-১৭৩/ তারিখ ৩০-০৭-২০২০ ইং। কিন্তু মামলা করেও শান্তিতে নেই ওই ছাত্রীর পরিবারের সদস্যরা। সুনারা প্রতিনিয়ত হুমকি ধামকি দিয়ে যাচ্ছেন। যে কোন সময় এই পরিবারের বড় ধরণের ক্ষতি করতে পারেন।

জৈন্তাপুর উপজেলার আলোচিত আওয়ামীলীগ নেত্রী পরিচয়দানকারী সুনারা বেগম ও তার ছেলে আতিকুল ইসলাম সোহান (আহমেদ সোহান) এর যন্ত্রণায় অতিষ্ট এলাকার শান্তিকামী মানুষজন।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest