সোমবার, ১৪ Jun ২০২১, ০৮:২৪ অপরাহ্ন

সাংবাদিক পরিচয়ে প্রতারক ভন্ড রাজু’র দৌরাত্ম্য!

সাংবাদিক পরিচয়ে প্রতারক ভন্ড রাজু’র দৌরাত্ম্য!

ঢাকা : প্রতিনিধি নন। নেই প্রতিষ্ঠানের সাথে কোনো সম্পৃক্ততা। তবুও বছরের পর বছর ধরে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেল বিটিভ’র লোগো ব্যবহার করে নিজের আখের গোছানোসহ নানারকম অপরাধমূলক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন মো. রাজু আহমেদ।

অবশেষে বিষয়টি জানতে পেরেছেন বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) এর উপ-মহাপরিচালক (বার্তা) অনুপ কুমার খাস্তগীর। এমতাবস্থায় প্রতারক রাজুকে ধরে পুলিশে দিতে সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন তিনি।

রাজু সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলেন দেশের স্বনামধন্য অনুসন্ধানী সাংবাদিক বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) সিনিয়র সহ-সভাপতি সাঈদুর রহমান রিমন।

পর টেলিভিশন থেকে এ নিয়ে এসেছে একটি ই-মেইল। যে বার্তায় সরাসরি রাজুকে ধরে পুলিশে দিতে বলেছেন উপ-মহাপরিচালক (বার্তা) অনুপ কুমার খাস্তগীর।

তিনি বলছেন, বিটিভি নিউজ কিংবা বার্তা বিভাগে রাজধানীর উত্তরা এলাকায় কেন, দেশের কোথাও মো. রাজু আহমেদ নামে আমাদের কোনো কর্মী নেই। মোটরসাইকেলে ‘বিটিভি সংবাদ’ লেখা স্টিকার লাগিয়ে সর্বত্র যে দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি কমপ্লিট একজন প্রতারক। মিডিয়া কর্মী হিসেবে অতিশীঘ্রই তাকে ধরে সংশ্লিষ্ট থানায় সোপর্দ করাটা আপনারও দায়িত্ব রয়েছে।

টেলিভিশনটির বার্তা বিভাগের শীর্ষ ওই কর্মকর্তা লিখিত বার্তা ছাড়াও মঙ্গলবার (০৮ জুন) দুপুর ২ টা ৫০ মিনিটে বাংলাদেশ প্রতিদিনের এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা তুলে ধরেন।

অভিযোগ রয়েছে রাজধানী ঢাকার উত্তরাসহ এয়ারপোর্ট, গুলশান, বনানী আশপাশের এলাকায় বিটিভি’র সাংবাদিক পরিচয় সদর্পে দাপিয়ে বেড়াতেন। দাম্ভিকতার সাথে নিজের পরিচয় দিতেন ‘আমি বিটিভি’র রাজু’! এমন পরিচয় দিয়ে তিনি ‘উত্তরা সাংবাদিক ক্লাব’ নামে একটি ভূঁইফোড় সংগঠন খুলেও হয়েছেন সভাপতি!

এসবকিছু নিয়ে এবার অবগত হয়েছেন বিটিভি কর্তৃপক্ষ। পরিপ্রেক্ষিতে সকল সাংবাদিকদের কাছে রাজুকে ধরে থানায় দেয়ারও জানানো হয়েছে আহবান।

এদিকে বিশস্ত একাধিক সূত্র বলছে, পুলিশ রেকর্ডে পেশাদার দাগী অপরাধী হিসেবেও চিহ্নিত রয়েছে সাংবাদিকতার নাম ভাঙিয়ে চলা রাজু। তার বিরুদ্ধে রয়েছে নারী বাণিজ্য, টার্গেটকৃত মানুষ অপহরণপূর্বক মুক্তিপণ আদায়, আপত্তিকর ছবি ও ভিডিওগ্রাফী ব্যবহার করে ধনাঢ্যদের কাছ থেকে মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নেয়ার মতো চাঞ্চল্যকর নানারকম কুকর্মের অভিযোগ।

এছাড়াও তার বিরুদ্ধে রয়েছে আরো পরনারীকে নিজের স্ত্রী সাজিয়ে সর্বনাশ ঘটানোর গা শিউরে উঠার মতোও অভিযোগ। এই তার বিরুদ্ধেই বারবার উঠে এসেছে উত্তরায় ইয়াবা সরবরাহ কর্মকান্ড তদারকিসহ পাইকারি ব্যবসায়িদের শেল্টারদাতা হিসেবে থাকার অভিযোগ।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সর্বশেষ তালিকাতেও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে তার নাম। এতসব গুণাবলীর সীলমোহর থাকার পরও গণ্ডমূর্খ মো. রাজু আহমেদ আত্মরক্ষায় নিজের পরিচয় দেন ‘আমি বিটিভি’র রাজু’!


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest