সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০১:০৩ অপরাহ্ন

মনোহরদীতে প্রতারণার শিকার প্রতিবন্ধী মোবারকসহ তিনভাই

মনোহরদীতে প্রতারণার শিকার প্রতিবন্ধী মোবারকসহ তিনভাই

মনোহরদী (নরসিংদী) প্রতিনিধি
নরসিংদীর মনোহরদীতে মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম নামে এক কেরানীর প্রতারণার শিকার হয়ে এখন ভিটেমাটি ছাড়া এতিম ও প্রতিবন্ধী শিশু মোবারক হোসেন (১১) সহ তিনভাই। তারা হাফিজপুর গ্রামের মৃত কাজী সামসুদ্দিনের ছেলে। বাবা-মা হারা এতিম এই শিশুটি মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোন বিচার পায়নি। অবশেষে স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং শিল্পমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের বিচার চেয়ে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে মনোহরদী উপজেলার চালাকচর ইউনিয়নের হাফিজপুর গ্রামে। অভিযুক্ত মাসুম একই বাড়ীর কাজী হাবিবুর রহমানের ছেলে এবং হাফিজপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী।
অভিযোগ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হাফিজপুর গ্রামের কাজী সামসুদ্দিন তিন ছেলে রেখে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারীতে মারা যান। বড় ছেলে কাজী মোস্তাফা নসিমন চালক দ্বিতীয় ছেলে তোফাজ্জল হোসেন একজন হিজরা এবং ছোট ছেলে কাজী মোবারক হোসেন শারীরীক প্রতিবন্ধী। ২০১৬ সালেই তাদের মা মারা যায়।
কাজী সামসুদ্দিনের হাফিজপুর উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন ১৩ শতাংশ জমি ছাড়া আর কোন সম্পত্তি ছিল না। ২০১৩ সালে ঐ স্কুলে অফিস সহকারী পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দিলে কাজী মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম চাকরীর আবেদন করেন। বিদ্যালয়ের স্বার্থে তৎকালীন পরিচালনা পর্ষদ ওই জমির বিনিময়ে চাকরী দেওয়া হবে বলে জানান। এসময় চাকরী প্রার্থী মাসুম প্রতিবেশী চাচা সামসুদ্দিনকে ওই জমি বিদ্যালয়ের নামে লিখে দিতে অনুরোধ করেন। বিনিময়ে তাঁকে বাড়ী থেকে সমপরিমাণ জমি লিখে দিবেন বলে রাজি করান। পরবর্তীতে কৌশলে সেখান থেকে ১০ শতাংশ জমি নিজের নামে লিখে নিয়ে বিদ্যালয়কে দান করেন প্রতারক মাসুম। ওই সময় সামসুদ্দিনকে বাড়ী করার জন্য মাত্র চার শতাংশ জমি মৌখিকভাবে দেওয়া হয়। বাকী ছয় শতাংশ জমিসহ পুরো জমি রেজিষ্ট্রি করে দেই দিচ্ছি বলে সময়ক্ষেপণ করতে থাকে। কাজী সামসুদ্দিন এক এসময় প্রতারণার শিকার হয়েছেন বুঝতে পেরে সমাজপতিদের কাছে বিচার চাইতে থাকেন। এ নিয়ে বেশ কয়েকবার দেন দরবারও হয়েছে। এই অবস্থায় চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে মারা যান সামসুদ্দিন। এরপর থেকেই বাড়ী থেকে উচ্ছেদ করতে প্রতিবন্ধী এতিম শিশু কাজী মোবারকের উপর বিভিন্নভাবে অত্যাচার নির্যাতন করতে থাকেন মাছুম। স্থানীয়দের কাছে বিচার না পেয়ে অবশেষে ন্যায় বিচার চেয়ে শিল্পমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের কাছে লিখিত আবেদন করেছেন। নরসিংদী জেলা প্রশাসককে বিষয়টি সত্যতা যাচাই করে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী।

কাজী সামসুদ্দিনের বড় ছেলে কাজী মোস্তফা জানান, আমাদের একমাত্র অবলম্বন ভিটামাটি ফেরত পাওয়ার জন্য শিল্পমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেছি। আমরা ন্যায়বিচার ন্যায় বিচার চাই।


Comments are closed.

© All rights reserved © 2017 24ghontanews.com
Desing & Developed BY ThemeForest